Pages

Categories

Search

আজ- মঙ্গলবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ভারতের প্রথম বাঙ্গালী রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জীর ছেলের গাজীপুর ও মানিকগঞ্জ পরিদর্শনে

2
দেবেশ মল্লিক : ভারতের প্রথম বাঙ্গালী রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জীর ছেলে ও ভারতীয় লোকসভার সদস্য অভিজিত মুখার্জী শুক্রবার দুপুরে হেলিকপ্টারে গাজীপুর ভাওয়াল রাজবাড়ি পরিদর্শনে এসেছিলেন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন পশ্চিমবঙ্গ কংগ্রেসের সাবেক সভাপতি ও রাজ্যসভার সদস্য অধ্যাপক প্রদীপ ভট্টাচার্য ও গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম ছিলেন। ভারত সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে ওই দুই অতিথি ঢাকায় আওয়ামীলীগের ২০তম সম্মেলনেও অংশ নেবেন। মানিকগঞ্জ ও গাজীপুর বেড়াতে যান।
সেখানে গাজীপুরের জেলা প্রশাসক এসএম আলম, আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম জানান, দুপুর সোয়া ১টার দিকে হেলিকপ্টার যোগে জেলা শহরের শহীদ বরকত স্টেডিয়াম পৌছলে তাদের স্বাগত জানান। পরে সেখান থেকে তারা গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদকের বাসায় যান এবং দুপুরের খাবার সারেন। এর আগে সকালে তারা মানিকগঞ্জ পৌরসভার কাউন্সিলর সুভাষ সরকারের বাসায় যান এবং সেখানে নাস্তা করেন।
মানিকগঞ্জের জেলা প্রশাসক রাশিদা ফেরদৌস জানান, ভারতের লোকসভার সদস্য অভিজিত ব্যক্তিগত সফরে সকাল সোয়া ১১টার দিকে মানিকগঞ্জ পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সুভাষ সরকারের বাসায় যান। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন সুভাষ সরকারের বন্ধু পশ্চিমবঙ্গ কংগ্রেসের সাবেক সভাপতি রাজ্যসভার সদস্য অধ্যাপক প্রদীপ ভট্টাচার্য। সেখানে অভিজিত বাংলাদেশের আইনশৃ্খংলা পরিস্থিতি ও প্রধানমন্ত্রীর বলিষ্ঠ নেতৃত্বের প্রশংসা করেন।
তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের নড়াইলের তার নানার বাড়ি। আর প্রদীপ ভট্টাচার্য বলেন, তার বাবাও দেশ বিভাগের আগে বাংলাদেশের ময়মনসিংহে স্বপরিবারে থেকে চাকুরি করেছেন। দেশ বিভাগের পর ১৯৪৬সালে তারা স্বপরিবারে ভারতে চলে যান। তাদের বাংলাদশের সাথে নাড়ির সম্পর্ক রয়েছে। বাংলাদেশের জনগণের অবস্থান ভারতীয়দের হৃদয়ে।
মানিকগঞ্জ পৌরসভার কাউন্সিলর সুভাষ জানান, অভিজিত ও প্রদীপ বাংলাদেশের আইটি ও স্বাস্থ্য বিভাগের প্রশংসা করে বলেন, অতি অল্পসময়ে বাংলাদেশের আইটি সেক্টর ভারতের চেয়েও এগিয়ে যাবে। অভিজিত বলেন, বাংলাদেশ জঙ্গী নির্মূলে শেষ পর্যায়ে আছে। ভারতও এর সুফল পাচ্ছে। ভারতের সাথে বাংলাদেশের রক্তের বন্ধন রয়েছে বলেন তারা। সেখানে তারা চিতই পিঠা, লুচি, সিট রুটি-মুরগীর মাংস খান। পরে তারা গাজীপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হন।
ভারতের এই দুই রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব আওয়ামীলীগের সম্মেলনে ভারতের প্রতিনিধি হিসেবে যোগ দিতে বাংলাদেশে আসেন।