Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

স্মার্টফোন দিয়েই অভ্যুত্থান ব্যর্থ করে দেন এরদোয়ান

জুলাই ১৬, ২০১৬
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
No Comment

578957a4c46188df348b4596-696x386বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক:
তুরস্কের সেনাবাহিনীর একদল বিপথগামী সদস্য যখন দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমসহ রাজধানীর প্রায় সব গণমাধ্যম নিজেদের দখলে নিয়ে অভ্যুত্থান ঘটায়, ঠিক সেই মুহূর্তেই প্রেসিডেন্ট দেশের জনগণকে রাস্তায় নেমে এসে এর প্রতিবাদ করার আহ্বান জানান।

শুক্রবার সন্ধ্যায় অভ্যুত্থানের পর ফেসবুকসহ প্রায় সব অ্যাপ বন্ধ করে রাজধানী ইস্তানবুলের বাসিন্দাদের ইন্টারনেট যোগাযোগ প্রায় বন্ধই করে দিয়েছিল বিদ্রোহী সৈন্যরা।

কিন্তু দেশটির বাইরে অবস্থান করা এরদোয়ান তখন জনসাধারণের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য তার স্মার্টফোনটিকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করেন এবং তা কার্যকরও হয়।

আইফোনে অ্যাপলের ফেসটাইম অ্যাপ ব্যবহার করে একটি ভাষণে এরদোয়ান তখন অভ্যুত্থান ঠেকাতে জনগণকে রাজপথে, বিমানবন্দরে অবস্থান নেয়ার আহ্বান জানান। তার ওই বক্তব্য সিএনএন-টার্ক টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।

রয়টার্সের খবর অনুযায়ী, দেশটিতে যখন অভ্যুত্থান ঘটে সেই মুহূর্তে তুরস্কের বাইরে অবকাশ যাপনে ছিলেন প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়িপ এরদোয়ান।

ফেসটাইম ব্যবহার করে এরদোয়ান বলেন, তুরস্কের জনগণের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি- জড়ো হন রাজপথে, বিমানবন্দরগুলোতে। তাদের কাছে ট্যাংক-কামান থাকতে পারে, কিন্তু জনগণের চেয়ে বড় কোনো শক্তি নেই।

তারপর পাল্টে যেতে থাকে দৃশ্যপট। যেসব এলাকায় সৈন্যরা সন্ধ্যা থেকে অবস্থান নিয়েছিল, সরকার সমর্থকেরা দলে দলে নেমে সেসব স্থানগুলোতে অবস্থান নেয়। এক পর্যায়ে সৈন্যরা আত্মসমর্পণ করেন পুলিশের কাছে।

এরপর মধ্যরাতে ইস্তানবুলে ফিরে এরদোয়ান সমর্থক পরিবেষ্টিত হয়ে বলেন, রাষ্ট্রের নিয়ন্ত্রণ এখনও তার হাতেই রয়েছে, অভ্যুত্থান চেষ্টাকারীদের চরম মূল্য দিতে হবে।