Pages

Categories

Search

আজ- সোমবার ২৭ মে ২০১৯

সান্তাহারের সজনে ডাটা যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন স্থানে

মার্চ ১৯, ২০১৯
কৃষি, বগুড়া, বিবিধ
No Comment


এম এ ইউসুফ, বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়ার আদমদীঘির সান্তাহারে হাট-বাজারে উঠতে শুরু করেছে গ্রীষ্মকালীন সবজি সজনে ডাঁটা। আবহাওয়া অনুক‚লে থাকায় এবং প্রাকৃতিক কোনো দূর্যোগ না হওয়ায় গত বছরের চেয়ে এবার সজনে ডাটার উৎপাদন ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। বর্তমানে হাট-বাজারে এর দামও বেশি। অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার গাছে গাছে প্রচুর সজনে ডাটা ধরায় স্থানীয় হাট-বাজারে প্রচুর আমদানি হবে বলে আশা করছেন ক্রেতারা।
স্থানীয় হাট-বাজার গুলোতে মুখরোচক ও পুষ্টিগুণে ভরপুর সজনে ডাটার চাহিদাও রয়েছে ব্যাপক। সান্তাহারের সজনে ডাটা বর্তমানে দেশের বিভিন্ন স্থানে রপ্তানি করা হচ্ছে।
অন্যান্য সবজির চেয়ে সুস্বাদু ও পুষ্টিগুণে ভরপুর হওয়ায় সজনে যে কোনো বয়সের মানুষ খেতে ভালোবাসে। চিকিৎসকদের মতে ক্যালোরিয়াম, খনিজ লবণ ও আয়রনসহ প্রোটিনযুক্ত খাদ্য সজনে ডাটাতে পাওয়া যায়। এছাড়া ভিটামিন এ,বি ও সি সমৃদ্ধ সজনে ডাটা মানব দেহের জন্য অত্যন্ত উপকারি। গর্ভবর্তী প্রসূতি মেয়েদের বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ কারি ও ফলদায়ক বলে ঔষধি সবজি হিসেবে এর ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। এছাড়াও এই গাছের ছাল ও পাতা রক্ত আমাশয় প্রতিরোধে কার্যকর ভ‚মিকা রাখে বলে চিকিৎসকেরা জানায়।
ছাতিয়ানগ্রামের নিমাইদীঘির আবুল হোসেন জানান, আমার ৫টি সজনে গাছ রয়েছে। এর মধ্যে ১টি গাছের ৭ মন সজনে ৬০টাকা কেজি দরে ১৬হাজার ৮শ টাকা পাইকারি বিক্রয় করি। এতে বিনা পরিশ্রমে ও বিনা পুজিতে ভালো লাভ হয়েছে।
সান্তাহার পুরাতন বাজারের সজনে বিক্রেতা সিদ্দিক হোসেন জানান, বাজারে বর্তমানে প্রতি কেজি সজনে ৭০ টাকা থেকে ৮০ টাকা দরে খুচরা বিক্রি করা হচ্ছে। প্রথমে এর দাম চড়া থাকলেও ২-১ সপ্তাহের মধ্যে এর দাম কমে যাবে।
সজনে ডাটা প্রধানত দুই প্রকার। এক প্রকার বছরে ১বার পাওয়া যায়। আর রাইখঞ্জন জাতের সজনে ডাটা বছরে দুই থেকে তিনবার বাজারে পাওয়া যায়। সজনে গাছ তৈরি করতে চারা রোপন করতে হয় না। যে কোনো পতিত জমির পুকুর পাড় রাস্তা বা বাড়ির আঙ্গিনায় বা যে কোনো ফাঁকা জায়গায় গাছের ডাল পুঁতে রাখলেই অবহেলা অযতেœর মধ্যেই প্রাকৃতিকভাবে ধীরে ধীরে এর ডাল-পালা বেড়ে গাছ বড় হতে থাকে। এমনকি ডাল পুঁতে রাখার পর একবছরের মধ্যেই ওই সব গাছে সজনে ডাটা ধরতে শুরু করে। বড় মাঝারি এক একটি গাছে ৫-১০ মণ পর্যন্ত সজনে পাওয়া যায়। বিনা পরিশ্রমে, বিনা খরচে অধিক লাভের আশায় অনেকেই সজনে চাষের জন্য আগ্রহী হয়ে উঠছে।