Pages

Categories

Search

আজ- শনিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৮

সর্ব কনিষ্ঠ পৌর মেয়র মনোহরদীর সুজন

জানুয়ারি, ৬, ২০১৬
জনপ্রতিনিধি, নরসিংদী
No Comment

1222[1]

ইসমাইল হোসাইন খান, নরসিংদী থেকে : ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত মনোহরদী পৌরসভা নির্বাচনে সর্ব কনিষ্ঠ মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন মো: আমিনুর রশিদ সুজন। তিনি আওয়ামীলীগ মনোনিত নৌকা প্রতীকে প্রতিদ্বন্ধীতা করেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী বিএনপি মনোনিত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী মো: মাহমুদুল হক চেয়ে প্রায় ৬ গুন বেশী ভোটের ব্যাবধানে নির্বাচিত হন। নির্বাচনে ৯ টি কেন্দ্রের ফলাফলে আমিনুর রশিদ সুজন মোট ভোট পেয়েছেন ৭৬৪৪ আর ধানের শীষ প্রতিকের প্রার্থী মো: মাহমুদুল হক ১২৮৮ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় হয়েছেন। সুজন মনোহরদী উপজেলা ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি। তিনি মনোহরদী পৌরসভার চন্দনবাড়ী এলাকার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা। তাঁর পিতা প্রয়াত মো: আব্দুর রশিদ (এমএন রশিদ) এবং মাতা মোসা: সামসুন্নাহার বেগম। তার পিতা ছিলেন মনোহরদী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক সহকারী শিক্ষক এবং স্বাধীনতা উত্তর মনোহরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পরবর্তীতে অামৃত্যু উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ছিলেন। মাতা মনোহরদী মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক। তিন ভাই এবং চার বোনের মাঝে সুজন পঞ্চম। জন্ম তারিখ ২৫ সেপ্টেম্বর ১৯৮৮ থেকে ৩০ ডিসেম্বর ২০১৫ ইং পর্যন্ত সুজনের বয়স ২৭ বৎসর নয় মাস পাঁচদিন। সুজন ২০০৩ সালে শাহাবুদ্দিন মেমোরিয়াল একাডেমী থেকে এসএসসি পাশ করেন। পরবর্তীতে মনোহরদী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ এবং ঢাকার একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে লেখাপড়া শেষ করেন। আমিনুর রশিদ সুজনের বাবা প্রয়াত এম এন রশিদের আদর্শে আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠন ছাত্রলীগের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হন। শুরুতেই তিনি নরসিংদী জেলা ছাত্রলীগের সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। পরবর্তীতে ২০০৯ সালে মনোহরদী ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত এবং সর্বশেষ ২০১১ সালের ১২ সেপ্টেম্বর মনোহরদী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন।
মনোহরদী বাজারের ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, আমিনুর রশিদ সুজন স্বচ্ছ এবং একজন দক্ষ ছাত্রনেতা। সুজন সর্বদা অন্যায়ের প্রতিবাদ জানিয়ে আসছেন। তিনি মেয়র নির্বাচিত হওয়ায় পৌর এলাকার স্বর্বস্তরের মানুষের আশা আকাংখার প্রতিফলন ঘটবে।
উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম রাশেদুল আলম বলেন, সুজন তরুণ প্রজন্মের প্রতিনিধি। তাই নির্বাচনে তরুণ সমাজের বিপুল সাড়া দিয়েছে। সুজন মেয়র নির্বাচিত হওয়ায় তরুণ প্রজন্মকে রাজনীতির মাধ্যমে দেশ গড়তে উদ্ধুদ্ধ করবে।
নবনির্বাচিত মেয়র আমিনুর রশিদ সুজন বলেন, মনোহরদী পৌরসভা প্রতিষ্ঠার দীর্ঘ ১৪ বছর পেরিয়ে গেলেও যোগ্য নেতৃত্বের অভাবে কাক্সিখত সেবা থেকে বঞ্চিত ছিল পৌরবাসী। সেই অবস্থা থেকে উত্তোরণের মাধ্যমে আধুনিক পৌরসভায় রূপান্তরিত করার জন্য তরুণ নেতৃত্বের প্রয়োজন ছিল। তাঁরই অঙ্গীকার নিয়ে পৌরবাসী ভোটে আমি মেয়র নির্বাচিত হয়েছি। এর পাশাপাশি তরুণ প্রজন্মকে মাদকের ছোবল থেকে রক্ষার জন্য আমার কঠোর ভূমিকা থাকবে। মনোহরদী পৌরসভাকে একটি পরিচ্ছন্ন, নিরাপদ ও বাসযোগ্য নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে চেষ্টা চালিয়ে যাব। সামাজিক দ্বন্ধ, অনাচার ও কলুষতার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলব। দল-মত নির্বিশেষে সকলের সহযোগীতার মাধ্যমে মনোহরদী পৌরসভাকে বাংলাদেশের মডেল পৌরসভা হিসেবে গড়ে তুলতে চাই।