Pages

Categories

Search

আজ- বৃহস্পতিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

শ্রীপুর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের পরিবর্তন নাম মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী কলেজ

সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৩
শ্রীপুর
No Comment

স্টাফ রিপোর্টার ঃ ঐতিহ্যের ধারক শ্রীপুর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ এখন ‘মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ’।  প্রতিষ্ঠার ৪৫ বছর পর স্থানীয় সংসদ সদস্যের নামে এ কলেজের নতুন নামকরণ করায় গাজীপুর -৩ সংসদীয় এলাকায় বইছে আলোচনা সমালোচনার ঝড়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে চলছে বিরামহীন প্রতিবাদ। রোববার শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ আনুষ্ঠানিকভাবে ‘ শ্রীপুর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ’ নাম পরিবর্তন করে ‘মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী কলেজ ’ ঘোষণা করবেন। অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে কলেজ কর্তৃপক্ষ  চালাচ্ছেন ব্যাপক প্রচারণা। আনুষ্ঠানিকতা শেষ না হলেও প্রায় এক বছর ধরে নতুন নামেই কলেজের কার্যক্রম চলছে বলে জানান কর্তৃপ¶। কলেজের সাবেক এক শিক্ষার্থী ( নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) জানান, কলেজের ফলাফলের দিকে দৃষ্টি না দিয়ে নাম পরিবর্তনের জন্য কর্তৃপক্ষ উঠে পড়ে লেগে আছে অনেক দিন ধরেই। কলেজের ইতিহাসে এ বছর এইচএসসিতে সবচেয়ে খারাপ ফলাফল করেছে। শতকরা ৩৪ জন শিক্ষার্থী উর্ত্তীণ হয়েছে।
কলেজেরে নাম পরিবর্তনের প্রতিবাদে গত ১৪ সেপ্টে¤^র পৌর মুক্তমঞ্চে এক সভার আয়োজন করা হয়। পুলিশ সে সভা পন্ডু করে দেয় এবং আয়োজকদেরকে গ্রেফতার করে । এ ঘটনাও ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দেয়।
তৎকালীন সময়ের সমাজহিতৈষী অংসখ্য মানুষের শ্রম অর্থ আর মেধার সমš^য়ে শ্রীপুর কলেজটি প্রতিষ্ঠা লাভ করে। ঢাকাস্থ ‘ শ্রীপুর থানা সমিতি’ নামের একটি সংগঠনের সদস্যরা সর্বপ্রথম এ কলেজ প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেন। এ লক্ষ্যে ১৯৬৭ সালের ২৭ অক্টোবর ঢাকা বার লাইব্রেরীতে সমিতির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়। ১৯৬৮ সালের ১০ জুলাই শ্রীপুর কিশোরী লাল নোনিয়ার পরিত্যক্ত জমিতে ‘ শ্রীপুর কলেজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়। ২০১০ সালে কলেজটি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ রূপান্তরিত হয়। এ প্রসঙ্গে সংসদ সদস্য এড. রহমত আলী বলেন‘ কলেজটি প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে তখন আমি অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছি। তবে বর্তমানে নাম পরিবর্তনের ক্ষেত্রে স্থানীয় লোকজনই বেশি আগ্রহী। আমার কোন ভূমিকা নেই।’