Pages

Categories

Search

আজ- শুক্রবার ১৬ নভেম্বর ২০১৮

শ্রীপুরে স্কুল ছাত্রীকে আটকে রেখে গণধর্ষণ

নভেম্বর ১, ২০১৫
আইন- আদালত, ধর্ষণ, শ্রীপুর
No Comment

 

বশির আহমেদ কাজল: গাজীপুরের এক স্কুল ছাত্রীকে ঘরে আটকে রেখে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শ্রীপুর উপজেলার ফরিদপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতিতা ময়মনসিংহের পাগলা থানাধীন বড়বাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী (১৩)।
এ ব্যাপারে উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের ফরিদপুর গ্রামের মৃত ছফির উদ্দিন মিয়ার ছেলে সামছুদ্দিন মিয়া (৪৫) ও তার দুলাভাই রহমত আলীসহ অজ্ঞাতনামাদের অভিযুক্ত করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ব্যাপারে ধর্ষিতার বড় ভাই পহেলা নভেম্বর রোববার সকালে শ্রীপুর থানায় মামলা করেছেন।
নির্যাতিতার বড় ভাই জানান, ময়মনসিংহের ভালুকা বড় ভাইয়ের বাসায় বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে ২৮অক্টোবর দুপুরে নির্যাতিতা বাড়ি থেকে বের হয়। পথ ভুলে গাজীপুরের শ্রীপুরের জৈনা বাজার এলাকায় চলে যান। এসময় নির্যাতিতাকে তার ভাইয়ের কাছে পৌঁছে দেয়ার কথা বলে অভিযুক্ত সামছুদ্দিন তার বাসায় নিয়ে যায়। সেখানে আটকে রেখে সামছুদ্দিন ও তার দুলাভাই রহমত আলীসহ কয়েকজন তাকে ধর্ষণ করে। তার বোন রহমতের বাসায় রয়েছে বলে ৩১ অক্টোবর তিনি খবর পান।
শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, পুলিশের সহযোগিতায় নির্যাতিতাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পরে তাকে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই হাসপাতালেই তার জ্ঞান ফিরে আসে। নির্যাতিতা তার সবকিছু পুলিশ ও স্বজনদের খুলে বলে। পরে উন্নত চিকিতসা ও স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য কর্তব্যরত চিকিতসক তাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। রোববার দুপুর পর্যন্ত কেউ গ্রেপ্তার হয়নি। তবে জড়িত শালা-দুলাভাইসহ অন্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।