Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ১৪ নভেম্বর ২০১৮

শ্রীপুরে শিশু কন্যা নাজমীন হত্যা মামলায় একজনের ফাঁসি দুই জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

মঞ্জুর হোসেন মিলন : জমি সংক্রান্ত বিরোধে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার চকপাড়া এলাকায় ৭ বছরের নাবালিকা শিশু কন্যা নাজমীন হত্যা মামলায় একজনের ফাঁসি ও অপর দুই জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। একই সাথে ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত রিপনকে দশ হাজার টাকা জরিমান এবং যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রাপ্ত দুই জনকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন মাসের সশ্রম কারাদন্ড দেয় আদালত। আজ ২২ নভেম্বর বুধবার গাজীপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক এ কে এম এনামুল হক এই রায় দেয়।
আদালত সূত্রে জানা যায়, মামলার বাদী ভিকটিমের মা মোসা: আছমা বেগমের মেয়ে শিশু কন্যা নাজমীন(৭) শ্রীপুরের চকপাড়ায় নানার বাড়িতে থাকতো। ভিকটিম নাজমীন ঘটনার দিন ২০১৫সালের ৩০ অক্টোবর রাতে নানীর সাথে ঘুমিয়ে ছিলো। গভীর রাতে দুস্কৃতিকারীরা ঘুমন্ত নাজমীনকে জোর পূর্বক বিছানা হতে উঠিয়ে নিয়ে ছোরা দিয়ে গলা কেটে হত্যার পর মৃতদেহ উঠানে ফেলে চলে যায়। মেয়ে হত্যার বিচারের দাবীতে মা মোসা: আছমা বেগম শ্রীপুর থানায় জমি সংক্রান্ত বিরোধে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার চকপাড়া এলাকার আ: করিম, আ: কাদির ও আ: মোতালিবকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করে। শ্রীপুর থানার উপ পুলিশ পরিদর্শক খন্দকার আমিনুর রহমান তদন্ত শেষে আদালতে মামা মো: রিপন মিয়া সহ অন্য দুই আসামী রবিউল ইসলাম ও মো: মোজাফফর নামে তিন দুস্কৃতিকারীর বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয়। আসামীরা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। আদালত আটজন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য গ্রহন করে। জেল হাজতে আটক আসামীদের উপস্থিতিতে বিজ্ঞ বিচারক আজ এই মামলার রায় ঘোষণা করেন।
দন্ডপ্রাপ্ত আসামীরা হলেন শ্রীপুর উপজেলার চকপাড়া গ্রামের হাসমত আলীর ছেলে মো: রিপন মিয়া, বগুড়া জেলার ভাটকান্দি গ্রামের মো: রহিমের ছেলে রবিউল ইসলাম ও শেরপুর উপজেলার ঝিনাইগাতী উপজেলার মো: মোস্তফার ছেলে মো: মোজাফফর।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এজাহার নামীয় তিন আসামী আ: করিম, আ: কাদির ও আ: মোতালিবকে অব্যাহতি দিয়ে আদালতে প্রতিবেদন দেন।
রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন পাবলিক প্রসিকিউটর (পি পি ) আলহাজ্ব হারিছ উদ্দিন আহমদ। আসামী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন শাহ মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম এবং ওয়াহিদুজ্জামান আকন(তমিজ)।