Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮

শ্রীপুরে বলাৎকারের অভিযোগে মসজিদ মাদ্রাসা ভাংচুর

ডিসেম্বর ২, ২০১৮
অপরাধ, আইন- আদালত, শীর্ষ সংবাদ, শ্রীপুর
No Comment

জামাল উদ্দিনঃ গাজীপুরের শ্রীপুরে পৌর এলাকা কেওয়া পশ্চিম খন্ড গ্রামে( মাওনা বাজার সংলগ্ন) মদিনাতুল উলুম মাদ্রাসার পরিচালক স্থানীয় লন্ড্রী ব্যবসায়ী আবেদ আলীর পুত্র ক্বারী নূরুল আলমের বিরুদ্ধে একাধিক ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি নিয়ে রবিবার সকালে স্থানীয় ভাবে বসার সিদ্ধান্ত হলেও উত্তেজিত জনতা মসজিদ, মাদ্রাসা ও একটি মটর সাইকেল ভাংচুর করে।এ সময় অভিযুক্ত নূরুল আলম পালিয়ে যায়।ঘটনার শিকার ছাত্র অভিবাবক এবং উত্তেজিত জনতা জানান দীর্ঘ দিন যাবৎ প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক নূরুল আলম ছাত্রদের সাথে অনৈতিক কাজ করে শাসিয়ে দিত, কোন অবস্থায় যেন ঘটনা প্রকাশ না পায়।এক ছাত্রের শারীরিক অবস্থা খারাপ দেখলে তার অভিভাবকের সন্দেহ হলে জেরার মুখে ভয়ে ভয়ে ঐ ছাত্র জানায় তাকে বেশ কয়েক দিন বলাৎকার করা হয়। এ খবর প্রকাশ পেলে একের পর এক বেরিয়ে আসে একাধিক ছাত্রকে বলাৎকারের কথা। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে স্থানীয়রা থানায় ফোন দিলে ঘটনাস্হলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে শ্রীপুর থানা পুলিশ।স্থনীয় কিছু লোক মাদ্রাসা ভাংচুরের বিষয়ে কিছু না ববললেও মসজিদ ভাংচুরের বিষয়ে নিন্দা জানান।২০১০ সালে প্রতিষ্ঠিত মাদ্রাসাটিতে কোরআনে হেফজ শিক্ষা দেওয়া হত।এ পর্যন্ত মাদ্রাসাটি থেকে ৪ টি বেইচের ছাত্রদের পাগরী প্রদান করা হয়। শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ জাবেদুল ইসলাম জানান ঘটনা সম্পর্কে তিনি অবগত আছেন। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।