Pages

Categories

Search

আজ- শনিবার ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯

শ্রীপুরে ধানের শীষের নির্বাচনী পরিচালনা কমিটির আহবায়ক আটক

শ্রীপুর প্রতিনিধি : আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গাজীপুর-৩ আসনে ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী ইকবাল সিদ্দিকীর নির্বাচনী পরিচালনা কমিটির আহবায়ক পীরজাদা এসএম রুহুল আমীনকে আটক করেছে শ্রীপুর থানা পুলিশ।

শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার টেংরা বাজারে গণসংযোগ শেষে গাড়িতে উঠার সময় তাকে আটক করা হয়। আটক রুহুল আমীন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সাবেক সদস্য ও কেন্দ্রীয় ওলামা দলের সাবেক প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও শ্রীপুর উপজেলা বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি। তিনি নিজেও বিএনপি থেকে গাজীপুর-৩ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন।

নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহŸায়ক আটকের ঘটনায় পরপরই তাকে ছাড়িয়ে আনতে থানায় হাজির হন গাজীপুর-৩ আসনে ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী প্রিন্সিপাল ইকবাল সিদ্দিকী। তিনি সাংবাদিকদের জানান, উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের টেংরা বাজারে নেতা-কর্মী ও সমর্থক নিয়ে শুক্রবার নির্ধারিত গণসংযোগ করছিলেন। গণসংযোগ শেষে তাঁর নির্বাচনী পরিচালনা কমিটির আহŸায়ক পীরজাদা রুহুল আমীনকে আটক করে শ্রীপুর থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। তবে তাঁর নামে কোন মামলা বা গ্রেপ্তারী পরোয়ানা ছিল না।

শ্রীপুর থানা থেকে পীরজাদা এস এম রুহুল আমিনকে ১৫ ডিসেম্বর সকালে পাশ্ববর্তী কাপাসিয়া থানার মামলা নং ২৮(১২)১৮ বিষ্ফোরক মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে গাজীপুর আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহবায়ক আটকের ঘটনায় তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এবং অবিলম্বে তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ধানের শীষের প্রার্থী কৃষক শ্রমিক জনতালীগের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ন সাধারন সম্পাদক প্রিন্সিপাল ইকবাল ছিদ্দিকী, জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক ও বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য কাজী সায়্যেদুল আলম বাবুল, শ্রীপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি শাহজাহান ফকির, পৌর বিএনপির সভাপতি এডঃ কাজী খান, উপজেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি মনজুরুল ইসলাম মজনু।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার গাজীপুর-৩ আসনের ঐক্যফন্টের প্রার্থীর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির দুই আহŸায়ককে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করেছে পুলিশ। তাঁরা হলেন, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি হুমায়ুন কবির সরকার ও থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি আব্দুল মোতালেব।