Pages

Categories

Search

আজ- সোমবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

শ্বতন্ত্র পে-স্কেলের দাবিতে ডুয়েট শিক্ষক সমিতির কর্মবিরতি ও অবস্থান ধর্মঘট

Gazipur-(2)-_08_June_2015-DUET_Teachers_Strike[1]

স্টাফ রিপোর্টার: গাজীপুরস্থিত ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (ডুয়েট) শিক্ষকরা সোমবার কর্মবিরতি ও অবস্থান ধর্মঘট কর্মসূচী পালন করেছে। প্রস্তাবিত অষ্টম জাতীয় পে-স্কেল বাতিল ও তা পুননির্ধারণ এবং শিক্ষকদের জন্য শ্বতন্ত্র পে-স্কেলের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের সামনে বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত এ কর্মসূচী পালিত হয়।

এসময় অনুষ্ঠিত সমাবেশে শিক্ষক নেতৃবৃন্দ চলতি মাসের মধ্যে শিক্ষকদের শ্বতন্ত্র বেতন কাঠামো প্রণয়ণের ঘোষণা আসার দাবি জানান। একইসঙ্গে শিক্ষকদের জন্য নতুন বেতন কাঠামো প্রণয়ন ও বাস্তবায়নের মধ্যবর্তী সময়ে ঘোষিত বেতন কাঠামো পুননির্ধারণ করে সব বৈষম্য দূরীকরণপূর্বক সিলেকশন গ্রেড অধ্যাপকদের বেতন-ভাতা সিনিয়র সচিবের সমতুল্য করা,অধ্যাপকদের বেতন-ভাতা পদায়িত সচিবের সমতুল্য করা, সহযোগী অধ্যাপক, সহকারী অধ্যাপক ও প্রভাষকদের বেতন কাঠামো ক্রমানুসারে নির্ধারণ করাসহ শিক্ষকদের যৌক্তিক বেতন স্কেল ও মর্যাদা নিশ্চিতের দাবি জানানো হয়। এছাড়াও বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সিদ্ধান্ত মোতাবেক আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে শিক্ষামন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী, শিক্ষা মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় কমিটির সভাপতি ও বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান এবং দাবি আদায়ের লক্ষ্যে ২০ জুন একটি সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হবে বলে নেতৃবৃন্দ জানিয়েছেন।

সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ডুয়েট শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক ড. আব্দুস সালাম, পরিচালক (ছাত্র কল্যান) অধ্যাপক ড. গণেশ চন্দ্র সাহা, অধ্যাপক ড. মোঃ আবু নঈম শেখ, অধ্যাপক ড. কামাল আল হাসান, অধ্যাপক ড. আজমল হোসেন, অধ্যাপক ড. জিনিয়া নাসরীন, ড. রাজু আহমেদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে অধ্যাপক আসাদুজ্জামান চৌধুরী বলেন, এ কর্মসূচী সরকার বিরোধী কোন কর্মসূচী নয়। এই কর্মসূচী শুধুমাত্র শিক্ষকদর ন্যায্য সম্মান ও শ্বতন্ত্র বেতন স্কেল আদায়ের জন্য।