Pages

Categories

Search

আজ- বৃহস্পতিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

রাণীনগরে ৩ দিন ধরে সিনজেনটা কর্মী রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ

ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০১৭
নওগাঁ, সন্ধ্যান
No Comment

নওগাঁ প্রতিনিধি : নওগাঁর রাণীনগরে সিনজেনটা কোম্পানির এমরান হোসেন (২২) নামের এক মাঠ উন্নয়ন কর্মী রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ রয়েছে । নিখোঁজের একদিন পর স্থানীয় লোকজন তার ব্যবহৃত বাইসাইকেল ও ব্যাগ পরিত্যাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে থানায় জমা দিয়েছে । তার সন্ধান না পাওয়ায় পরিবারে চরম আতংক আর উদ্বেগ বিরাজ করছে । এমরান রাণীনগর উপজেলার কালীগ্রাম বড়িয়া পাড়া গ্রামের মোকলেছুর রহমানের ছেলে ।

নিখোঁজ এমরান হোসেনের মামা হোসেন আলী ও ভগ্নিপতি সাইদ হোসেন জানান, গত প্রায় সাড়ে তিন বছর আগে সিনজেনটা কোম্পানির ফিল্ড ডেভেøাপার হিসেবে চাকুরি নিয়ে রাণীনগর সদরের পূর্ববালু ভরা গ্রামে গোলাম হোসেন ডিজেল এর বাসায় ভাড়া থাকতো । সেখান থেকেই এমরান তার চাকুরি কর্ম করে চলতো । সপ্তাহের প্রতি বৃহস্পতিবার বাড়ীতে গিয়ে শনিবার আবার কর্মস্থলে চলে যেতো । গত ২৭ ফেব্রæয়ারী বাসার মালিক ডিজেল হোসেনসহ তার বন্ধুরা ফোন করে তাকে পাওয়া যাচ্ছেনা বলে জানান। এর পর থেকেই তাকে খোঁজা-খোঁজি শুরু করে । এর মধ্যে গত সোমবার সন্ধ্যায় রাণীনগর রেল-লাইনের দক্ষিন চকের ব্রিজ এলাকার পাকা রাস্তার পার্শ্বে ঝোপের মধ্য থেকে একটি সাইকেল ও একটি ব্যাগ স্থাণীয় লোকজন দেখতে পেয়ে উদ্ধার করে সন্ধ্যায় থানায় জমা দেয় । খবর পেয়ে এমরানের আতœীয় ¯^জনরা থানায় গিয়ে ব্যাগ ও বাইসাইকেল এমরানের ব্যবহৃত বলে সনাক্ত করে। তবে এমরানকে অপহরন করা হয়েছে নাকি হত্যা করা হয়েছে নাকি অন্য কোন ঘটনা রয়েছে তা নিয়ে পরিবারে আশংকা দেখা দিয়েছে । খবর পেয়ে থানা পুলিশও এমরানকে উদ্ধারে মাঠে নামে । কিন্তু গত দু’দিনেও তাকে উদ্ধার কি¤^া সন্ধ্যান করতে পারেনি পুলিশ ।

এব্যাপারে এমরানের সহকর্মী রাকিব হোসেন জানান, আমি আর এমরান একই বাসার একই রুমে থাকি । একই কোম্পানির রাণীনগর উপজেলার রেল লাইনের পূর্ব দিকে এমরান এবং রেল-লাইনের পশ্চিম দিকে আমি কর্মরত আছি । গত ২৬ ফেব্রæয়ারী সন্ধ্যায় এমরান হোসেন জানিয়েছিল এক জায়গায় যাচ্ছি,ফিরতে দু’ঘন্টা দেরি হতে পারে বলে চলে যায় । এর পর আর বাসায় ফিরে আসেনি।

বাসার মালিক গোলাম হোসেন ডিজেল জানান,সন্ধ্যার পর এমরান বাসায় এসে সাইকেল নিয়ে বেড় হয়ে যায় । যাবার সময় বাসায় ফিরতে কিছু দেরি হতে পারে বলে জানিয়ে চলে যায় । এর পর সারা রাত বাসায় ফিরে না আসায় এবং মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়ায় সকালে এমরানের বাড়ীতে খবর দেয়া হয় । তবে এমরানের সাথে কারো কোন দন্দ ছিলনা বলে জানান তিনি।

রাণীনগর থানার ওসি (তদন্ত) জহুরুল হক জানান, সোমবার সন্ধ্যায় নিখোঁজ এমরানের ব্যবহৃত বাইসাইকেল ও ব্যাগ স্থানীয় লোকজন ঝোপেড় মধ্যে পরে থাকতে দেখে উদ্ধার করে থানায় জমা দিয়েছে । এঘটনায় এখন পর্যন্ত জিডি বা মামলা দায়ের করা হয়নি । তবে আজ রাতে (মঙ্গলবার) মামলা হতে পারে। পাশা-পাশি এমরানের পারিপার্শিক বিষয়াদি খোঁজ করে দেখা হচ্ছে এবং আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি তাকে খুঁজে বের করতে।