Pages

Categories

Search

আজ- শুক্রবার ১৬ নভেম্বর ২০১৮

রাণীনগরে পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন

জুলাই ২৮, ২০১৭
নওগাঁ, সংবাদ সম্মেলন
No Comment


নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর রাণীনগরে এক মিথ্যে সংবাদ সম্মেলনের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরেকটি সংবাদ সম্মেলন করেছে। গত ১৭ জুলাই দৈনিক করতোয়া পত্রিকায় প্রকাশিত মিথ্যে সংবাদ সম্মেলনের বিরুদ্ধে উপজেলার ৬নং কালিগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: সিরাজুল ইসলাম বাবলু বৃহস্পতিবার বিকালে ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে এই পাল্টা সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে চেয়ারম্যান মো: সিরাজুল ইসলাম বাবলু বলেন গত ১৭ জুলাই বগুড়া থেকে প্রকাশিত দৈনিক করতোয়া পত্রিকায় প্রকাশিত “রাণীনগরের এক গৃহবধূর সম্পত্তি রক্ষায় সহযোগিতা চেয়ে সংবাদ সম্মেলন” শিরোনামের সংবাদে আমাকে জড়িয়ে জমি সংক্রান্ত যে বিষয় উল্লেখ করা হয়েছে তা সম্পন্ন মিথ্যে, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। এই ঘটনার পর সকল কাগজপত্রাদি পর্যালোচনা করে দেখা গেছে তাদের অনেক সম্পত্তি বর্তমানে হাট ও জনসাধারণের ব্যবহার্য্য হিসাবে সি/এস খতিয়ানে আছে। আমি মনে করি এটি আইনী প্রক্রিয়ায় দেখা খুব প্রয়োজন। তাদের গ্রামের মো: আনিছুর রহমান, জাহাঙ্গির মোল্লা, নজরুল ইসলাম ও আব্দুর রাজ্জাক মুন্সিকে জড়িয়ে প্রতিহিংসা বশত আমাকে সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন ও মান ক্ষুন্ন করার জন্য এই উদ্দেশ্য প্রণোদিত সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে গত ৮জুলাই ঘর তৈরির যে বিষযটি তুলে ধরা হয়েছে তা তাদের গ্রামের উক্ত ব্যক্তিরাও জানেন না। আমি মনে করি যে মহিলা এই সংবাদ সম্মেলন করেছে সে নিজেই একজন মিথ্যেবাদী কারণ তার স্বামী কখনোই মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন না। অথচ সে তার স্বামীকে মুক্তিযোদ্ধা হিসাবে আখ্যায়িত করেছেন। তার স্বামীকে মুক্তিযোদ্ধা বলা মানে পুরো মুক্তিযোদ্ধা সমাজকে কলংকিত করা হবে। বরং সেই সময়ে তার স্বামীর বিভিন্ন অপকর্মের জন্য স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা তাকে ধরে নিয়ে যায় এবং গ্রামের গন্যমান্য ব্যক্তিদের অনুরোধক্রমে তার স্বামীকে প্রাণ ভিক্ষে দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। তাই আমি এই মিথ্যে সংবাদ সম্মেলনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জ্ঞাপন করছি। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন
সাবেক চেয়ারম্যান মো: আনিছুর রহমান, মো: নজরুল ইসলাম নজু, মো: জাহাঙ্গির আলম মোল্লা, আব্দুর রাজ্জাক, জামাল ফকির জয়, ইউনিয়নের সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ প্রমুখ।