Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ২১ নভেম্বর ২০১৮

রাণীনগরে দুই সন্তানের জননীর রহস্যজনক মৃত্যু

মার্চ ১৭, ২০১৭
অপমৃত্যু, নওগাঁ
No Comment


আব্দুর রউফ রিপন,নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর রাণীনগরে মিরাট ইউপি’র ধনপাড়া গ্রামের নিলুফা বেগম নিলি (২৮) নামের দুই সন্তানের জননীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। তার স্বামী পক্ষের লোকজন আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলেও এলাকায় ব্যাপক গুঞ্জন চলছে তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। অনেক দেন-দরবার শেষে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিলি’র মৃতদেহ উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য প্রেরণ করেছে।

জানা গেছে, উপজেলার মিরাট ইউনিয়নের ধনপাড়া গ্রামের ছলিমুদ্দিনের ছেলে মনিরুল ইসলাম রনি’র সাথে গত ১২ বছর আগে পারিবারিক আয়োজনে অনেক ধুমধাম করে একই গ্রামের আলেফ উদ্দিনের মেয়ে নিলি’র বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে নানা বিষয় নিয়ে কারণে অকারণে ঝগড়া-বিবাদ লেগেই থাকতো। এর মাঝে তাদের সংসারে এক ছেলে ও এক মেয়ে জন্ম নেয়। শুক্রবার রাত অনুমান দেড়টার দিকে ওড়না পিঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে দাবি করেন নিলি’র স্বামী মনিরুল ইসলাম রনি। শুক্রবার সকালে লাশ উদ্ধারের জন্য পুলিশ ঘটনাস্থলে আসছে এমন সংবাদ পেয়ে কিছু সময়ের জন্য হঠাৎ করে রনি শত শত উপস্থিত মানুষের চোখের আড়াল হয়ে যায়। কিন্তু পুলিশ মোবাইল ফোনে রনিকে লাশের কাছে আসতে বললে অনেক তাল-বাহানার এক পর্যায়ে ওই গ্রামের কতিপয় মোড়লের পরামর্শে ঘটনাস্থলে রনি এসেই নাটকীয় ভাবে হাউমাউ করে কেন্দে উঠে বর্ণনা দেয় তার স্ত্রী নিজের ওড়না গলায় পিঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তবে রনি দাবি করেন, রাতে খাবার শেষে বিশেষ কাজে তিনি বাড়ির বাহিরে গিয়েছিল। রাত অনুমান দেড়টার দিকে বাড়িতে ফিরলে নিলি’র ঝুলন্ত দেহ দেখে রনি নিজেই নামিয়ে রেখে পরিবারের লোকজনকে ডেকে নিয়ে আসে।

রাণীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, খবর পেয়ে আমি নিজে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ দেখে আমার সন্দেহ হওয়ায় ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করি। তবে আমি যতটুকু জেনেছি তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ভাল সর্ম্পক ছিল না। মাঝে মধ্যেই রনি তার স্ত্রী নিলিকে মারপিট করতো। এটা হত্যা না আত্মহত্যা তা ময়না তদন্ত শেষে জানা যাবে।

এব্যাপারে রাণীনগর থানায় নিলি’র মামা উপজেলার হরিশপুর গ্রামের ছহির উদ্দিন বাদি হয়ে এক ইউডি মামলা করেছে।