Pages

Categories

Search

আজ- বৃহস্পতিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

রাণীনগরে আ’লীগ নেতার স্মরন সভায় আওয়ামীলীগের চার মনোনয়ন প্রত্যাশী

নওগাঁ প্রতিনিধি : নওগাঁর রাণীনগরে সোমবার দুপুরে উপজেলার করজগ্রামে সরকারি খাস পুকুর দখল করাকে কেন্দ্র করে নিহত আ’লীগ নেতা আজিম উদ্দিনের স্মরন সভা ও মিলাদ মাহফিলে নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনের আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনে আ’লীগের ৪জন মনোনয়ন প্রত্যাশী নেতার উপস্থিতি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

এসময় নেতারা নির্মম ভাবে নিহত হওয়া আজিম উদ্দিনের পরিবারকে সান্ত¡না প্রদান করেন। তারা বর্তমান এমপির রোষানলে একজন নিষ্পাপ ইউনিয়ন আ’লীগ নেতাকে তার দলবল দিয়ে নির্মম ভাবে হত্যার করার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করেন। আগামী দিনে এই আসনে এই রকম অপত্যাশিত ঘটনা আর কখনোই ঘটবে না বলে তারা নিশ্চয়তা প্রদান করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন আ’লীগ থেকে আগামী একাদশ সংসদ সদস্য নির্বাচনে এমপি মনোনয়ন প্রত্যাশী রাজশাহী মহানগর আ’লীগের সহ-সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা নওশের আলী, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারন সম্পাদক ও সাবেক সাংসদ ওহিদুর রহমানের ছেলে এ্যাড. ওমর ফারুক সুমন, রাণীনগর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন হেলাল ও উপজেলার রবগাছা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা আ’লীগের সদস্য আব্দুর রহমান। এসময় আজিম উদ্দিনের বাড়িতে তার মিলাদ মাহফিল ও স্মরন সভায় এলাকার হাজার হাজার মানুষ অংশ গ্রহণ করে।

উল্লেখ্য, উপজেলার করজগ্রাম সখিনপাড়ায় মসজিদ সংলগ্ন সরকারি একটি খাস পুকুর মসজিদ কমিটি ও গ্রামবাসি মসজিদের উন্নয়নে ভোগ দখল করে আসছিল। ওই খাস পুকুরটি মসজিদ কমিটির কাছ থেকে লীজ নিয়ে প্রায় ১৪-১৫ বছর থেকে মাছ চাষ করে আসছিলেন নিহত আজিম উদ্দিনের ভাই মো: শহিদুল ইসলাম। পুকুরটি নিয়ে আদালতে মামলাও রয়েছে। গত ২৭ মে রবিবার দুপুরে বর্তমান এমপির লোকজনরা পুকুরটি দখল করতে গেলে বাধা দিলে লাঠিসোটা, লোহার রড, হাতুড়ী ইত্যাদি দিয়ে এলোড়িপাতি দিয়ে মারপিট শুরু করে দখলবাজরা। তাদের মারপিটে শহিদুল ইসলাম, তার বড় ভাই আজিম উদ্দিনসহ জালাল ও তাদের মা মানিকজান বেওয়াসহ ৭-৮ জন গুরুত্বর আহত হন। আহতদের মধ্যে উপজেলার কালিগ্রাম ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি আজিম উদ্দিন নিহত হন। নিহত আজিম উদ্দিন ওই ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি পদে ছিলেন।