Pages

Categories

Search

আজ- মঙ্গলবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

রাণীনগরে অর্ধ-শতাধিক খাসপুকুর প্রভাবশালীদের দখলে

জুন ১৩, ২০১৫
কৃষি, দূনীতি, নওগাঁ
No Comment

Pukur_Pic[1]
মোঃ শহিদুল ইসলাম, নওগাঁ ঃ নওগাঁর রাণীনগরে প্রভাবশালী ভুমিদস্যুরা প্রায় অর্ধশতাধিক খাসপুকুর কৌশলে দখল করার পায়তারা করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রায় শত বছর পরে রবীন্দ্র পরিবার থেকে দাদার নামে পত্তন নেওয়ার নামকাওয়াস্তে দলিল দেখিয়ে মামলা দায়ের করে উপজেলা জলমহাল কমিটির ইজারার উপরে আদালতের স্থগিতাদেশ এনে নিজেদেরকে খাসপুকুরের মালিকানার দাবি করছে। এতে সরকার প্রতি বছর প্রায় কোটি টাকা রাজশ্ব বঞ্চিত হচ্ছে ।
উপজেলা ভুমি অফিস সুত্রে জানা গেছে, রাণীনগর উপজেলায় ছোট-বড় মোট ৪৮০ টি খাসপুকুর আছে যা উপজেলা জলমহাল কমিটি ধারাবাহিকভাবে টেন্ডার বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ইজারা প্রদান করে আসছে। প্রায় শত বছর পূর্বে পতিসর রবীন্দ্র কাচারীবাড়ী থেকে দাদা ও বাবার নামে বড় আয়তনের পুকুরগুলো পত্তন নেওয়া আছে মর্মে নামকাওয়াস্তে দলিল দেখিয়ে পুকুরের মালিক দাবি করে আদালতে মামলা দিয়ে আদালতের স্থগিতাদেশ এনে খাসপুকুর দখলে নিচ্ছে কতিপয় প্রভাবশালী মহল। পতিসর কাচারীবাড়ি থেকে কথিত পত্তনের তালিকায় রয়েছে উপজেলার কালীগাঁও, মরুপাড়া, সিলমাদার, হাসানকুঁড়ি সহ চারটি মেীজায় অবস্থিত উপজেলার সবচেয়ে আলোচিত ও আবাদপুকুর দিঘী যার আয়তন ১৯.৫৮একর, বনপুকুর মৌজার বনপুকুর ৬.৬২ একর, রাজাপুর মৌজার ৯৫৮ দাগে ২ একর, ৫৯৬ দাগে ১.৩০ একর, কালীগাঁও মৌজার ৪৩১০ দাগে১.৬৪ একর, ২২৯৫ দাগে ৪০ শতাংশ, ২৮৮৬ দাগে ৭৪ শতাংশ, রাতোয়াল ও রাখালগাছী মৌজার ৫২২ দাগে ১.৭৯ একর, ৩০ দাগে ৮৯ শতাংশ, ১১২ দাগে ৭৯ শতাংশ, ৫১৪ দাগে ১.৫৮ একর, ১৪০ দাগে ১.১৯ একর , ১৬৮ দাগে ১.৭৩ একর, ২২০ দাগে (সাবেক) ২.৯০ একর, ২৪৪৪ দাগে ১.৬৪ একর, এভাবেই উপজেলার ভাটকৈ, উপজেলার দ্বিতীয় আয়তনের নলদিঘী ও খট্টেশ্বর মৌজায় প্রায় অর্ধশতাধিক পুকুরের উপরে কোনটায় স্থগিতাদেশ কোনটায় আদালতে মামলা প্রক্রিয়াধিন আছে বলে জানা গেছে । উপজেলার বিভিন্ন এলাকার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক প্রবীন ব্যক্তিরা জানান,আমরা দীর্ঘদিন যাবত দেখে আসছি এই খাস পুকুরগুলো সরকারি ভাবে ইজারা দেয়া হত। গত কয়েক বছর যাবত এলাকার কতিপয় প্রভাবশালী ব্যক্তিরা পাকিস্তানী সময়ের পুরাতন কিছু ষ্টাম্পের মাধ্যমে আদালতে মামলা করে নিজেদেরকে মালিক বলে দাবী করে আসছে । কিন্তু তাদের পরিবারের উত্তরসুরীরা কখনও এই সব পুকুরের মালিক দাবী করেছে এমন কোন নির্ভরযোগ্য তথ্য আমাদের জানা নেই।
এই বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভারপ্রাপ্ত সহকারি কমিশনার( ভ‚মি) মনিরুল ইসলাম পাটওয়ারী জানান, সরকারি সম্পদ রক্ষার জন্য সকল প্রকার আইনী প্রক্রিয়া অব্যহত রেখেছি।