Pages

Categories

Search

আজ- মঙ্গলবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ময়মনসিংহে দুইজনকে হত্যা করে ১০ গরু লুট : আটক ১


ময়মনসিংহ প্রতিনিধি : ময়মনসিংহে সদরের চরবড়বিলায় দুইজনকে হত্যা করে ১০টি ষাড় গরু লুট করে নিয়ে গেছে ডাকাতদল। রবিবার দিবাগত রাতে বড়বিলা আকাশী এগ্রো ইন্ডাট্রিজের মালিক আনিসুর রহমানের খামারে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন ওই ফার্মের গার্ড একই গ্রামের ইদ্রিস আলী (২৮) ও হাসু মোড়লের ছেলে মোজাফফর হোসেন মোজা (৪৫)। এ সময় অপর গার্ড আহত হামেদ আলীকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছে। পুলিশ অপর গার্ড তাহের উদ্দিনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে।
জানা গেছে, রবিবার দিবাগত রাতে আট-দশজনের একটি ডাকাতদল জেলা সদরের ফুলপুর রোডের চরবড়বিলা গ্রামে আকাশী এগ্রো ফার্মে ট্রাকসহ এসে ফার্মের পাহারাদার ইদ্রিসকে আটক করে পিটিয়ে ও ছুরিকাঘাত করে তার হাত-পা বেঁধে পাশের পুকুরে ফেলে দেয়। এ সময় গার্ড হামেদ আলীকেও মারধর করে হাত-পা বেঁধে রাখে বলে আহত গার্ড হামেদ আলী জানান। পরে ডাকাতদল ট্রাকযোগে ফার্মের দশটি গরু বোঝাই করে লুট করে নেওয়ার সময় পার্শ্ববর্তী অপর মিল মালিকের ভাই মোজাফফর হোসেন মোজাকেও পিটিয়ে ও ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে লাশ পুকুরে ফেলে দেয়।
মোজাফফরের ভাতিজা তানভীর হোসেন বলেন, ‘চাচা ডাকাতদের দেখে ফেলায় এবং বাধা দেওয়ায় তারা তাকে হত্যা করা হতে পারে। খামারের পরিচালক হারুন অর রশিদ বলেন, ইদ্রিস চার মাস আগে সেখানে চাকরি নেন। ডাকাতদের চিনে ফেলায় তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে তারা ধারণা করা হচ্ছে। ডাকাতরা খামারের ১০টি গরু নিয়ে গেছে। খামারের মালিক আনিসুর রহমান জানান ছোট বড় ১০টি ষাঢ় গরু ডাকাতদল লুটে নিয়েছে। গরুর দাম প্রায় দশ লাখ টাকা। ডাকাতদের চিনে ফেলার কারণে তাদেরকে হত্যা করা হতে পারে। কোতোয়ালী পুলিশের ওসি মোঃ কামরুল ইসলাম বলেন, নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে। জ্ঞিাসাবাদের জন্য গার্ড তাহের উদ্দিনকে আটক করা হয়েছে। তবে পক্রিয়াধীন রয়েছে।