Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ১৪ নভেম্বর ২০১৮

মুজিবনগরের হত্যা মামলায় ২ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

অক্টোবর ২৬, ২০১৫
মেহেরপুর, সাজা
No Comment

গাজীপুর দর্পণ রিপোর্ট:8172

মেহেরপুর মুজিবনগর (তৎকালীন সদর) উপজেলার গোপালপুর গ্রামের আক্তারুজ্জামান আতাই হত্যা মামলায় চরমপন্থি সংগঠন পূর্ববাংলা কমিউনিস্ট পার্টির (জনযুদ্ধ) ২ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

একই সঙ্গে তাদের ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরো এক মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। সাক্ষ্যপ্রমাণে দোষী প্রমাণিত না হওয়ায় একই মামলায় ৭ আসামিকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (২৬ আক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে মেহেরপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ টি এম মুসা জনাকীর্ণ আদালতে এ আদেশ দেন।

এরা হলেন, কালু হোসেন (৪৮) ও বাবলু হোসেন (৪৫)। যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি কালু হোসেন চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার ভগিরতপুর গ্রামের আক্কাস আলীর ছেলে এবং বাবলু হোসেন একই উপজেলার কালিয়াবকরি গ্রামের পটল বিশ্বাসের ছেলে।

খালাস প্রাপ্ত আসামিদের রয়েছেন, চরমপন্থি সংগঠন লাল্টু বাহিনীর প্রধান চুয়াডাঙ্গার কয়রাডাঙ্গা গ্রামের সিরাজ আলীর ছেলে নুরুজ্জামান লাল্টু, মৃত রুহুল আমিনের ছেলে আব্দুল কাদের, লালু মিয়া, মুক্তি হোসেন, মল্লিক হোসেন ও খলিলুর রহমান।

যাবজ্জীবন প্রাপ্ত দুই আসামিসহ অপর ৪জন আদালতে অনুপস্থিত ছিলেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ১৯৯৩ সালের ১৪ মে রাতে ১০/১২ জনের একদল সন্ত্রাসী মেহেরপুরের মুজিবনগর উপজেলার (তৎকালীন সদর) গোপালপুর গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে আক্তারুজ্জামান আতাইকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায়। নিয়ে গিয়ে গ্রামের একটি আমবাগানে গুলি ও গলাকেটে করে হত্যা করে। পরদিন নিহত আতাইয়ের বাবা আব্দুল কাদের বাদী হয়ে সদর থানায় ৩০২/৩৪ ধারায় ৯ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার প্রাথমিক তদন্ত শেষে তদন্তকারী কর্মকর্তা আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। মামলায় ২০জন সাক্ষী তাদের সাক্ষ্য দেন। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর কাজী শহিদুল হক এবং আসামি পক্ষে খন্দকার আব্দুল মতিন দায়িত্ব পালন করেন।