Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ১৪ নভেম্বর ২০১৮

মান্দায় প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে অনিয়ম দূর্নীতি ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ


মো: হাবিবুর রহমান, মান্দা (নওগাঁ) সংবাদদাতাঃ নওগাঁর মান্দা উপজেলার ৫৬ নং চককার্ত্তিক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা ফরিদা ইয়াসমিনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম দূর্নীতি ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগে জানা গেছে, প্রধান শিক্ষিকা নিয়ম-নীতিকে তোয়াক্কা না করে অনিয়মতান্ত্রিকভাবে বিদ্যালয় পরিচালনা করে আসছেন। তার ইচ্ছেমত অফিস সময় না এসে প্রতিনিয়ত বেলা ১১-১২ টার সময় উপস্থিত হয়ে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করেন। ছাত্র অবিভাবক ও এলাকাবাসী এ বিষয়ে তাকে বললে তিনি বলেন, “আমার ইচ্ছায় বিদ্যালয় পরিচালনা হবে।” এতে করে বিদ্যালয়ের কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদের লেখাপড়ার বিঘœ ঘটছে। শুধু তাই নয় তিনি সরকারী নীতিমালা বহির্ভূতভাবে দীর্ঘ ১২ বছর যাবৎ একই ব্যাক্তি দিয়ে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি গঠন করে বিদ্যালয়ের বিভিন্ন কাজের অর্থ আত্মসাৎ করে আসছেন। অভিযোগ সূত্রে পাওয়া গেছে, তিনি ২০১৪-২০১৫ অর্থ বছরে মেরামত কাজ বাবদ ৩০ হাজার, শিশু শিক্ষা বাবদ ৫ হাজার, গাছ লীজ বাবদ ৫ হাজার ২৬শে মার্চ উদ্যাপন বাবদ ২ হাজার, কন্টিজেন্সি বিল বাবদ ৭ হাজার, পরীক্ষা ফি বাবদ ৪ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেন এবং ২০১৫-২০১৬ অর্থ বছরে ¯িøপ হতে ৪০ হাজার, শিশু শিক্ষা বরাদ্দ বাবদ ৫ হাজার, স্থানীয় বরাদ্দ প্রায় ৫ হাজার, গাছ লীজ প্রায় ৫ হাজার, পরীক্ষা ফি আদায় বাবদ ৪ হাজার, ২৬শে মার্চ উদ্যাপন বাবদ ২ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেন। এছাড়াও তাঁর নিয়োগের পর হতে ১ লক্ষাধিক টাকা বিভিন্ন গাছ কর্তন করে আত্মসাৎ করেন। তাঁর বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর পক্ষে কুসুম্বা ইউপির ৮ নং ওয়ার্ড সদস্য মুনছুর রহমান ও জাহাঙ্গীর আলম অত্র বিদ্যালয়ের শিক্ষার পরিবেশ দ্রæত ফিরিয়ে আনার স্বার্থে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি পরিবর্তন করে নতুন কমিটি গঠন পূর্বক অর্থ আত্মসাতের বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য জেলা প্রশাসক, উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, শিক্ষা অফিসার, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার নওগাঁ বরাবর গতকাল রবিবার অভিযোগের স্বারকলিপি প্রদান করেন। এবিষয়ে প্রধান শিক্ষিকা ফরিদা ইয়াসমিনের সাথে মোবাইলফোনে (০১৭১৫-৬৫১২৬৪) একাধিক বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায় নি। এব্যাপারে থানা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা শিক্ষা অফিসারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।