Pages

Categories

Search

আজ- শুক্রবার ১৬ নভেম্বর ২০১৮

মান্দায় ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষকসহ মাতবরের বিরুদ্ধে মামলা

অগাষ্ট ৮, ২০১৭
অনিয়ম, অপরাধ, আইন- আদালত, ধর্ষণ, নওগাঁ
No Comment

মোঃ হাবিবুর রহমান, মান্দা (নওগাঁ) সংবাদদাতাঃ নওগাঁর মান্দায় জল্পনা-কল্পনার অবশেষে ধর্ষণ ঘটনার সালিশ ও টাকা নিয়ে ধর্ষককে ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে এক নারী। ভিকটিম বাদি হয়ে মান্দা থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় ধর্ষক শরিফুল ইসলাম, সালিশের মাতবর মান্দা উপজেলার কুসুম্বা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য সামসুল আলম মন্টু ও শহিদুল ইসলামকে আসামি করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সরজমিনে বিলকরিল্যা গ্রামে গেলে স্থানীয় এলাকাবাসী ও মামলা সুত্রে জানা গেছে, ভিকটিম নওগাঁ শহরের উকিলপাড়া মহল্লায় একটি বাসা ভাড়া নিয়ে স্বামী-সন্তানসহ বসবাস করতেন। ভাড়া বাসার পাশে একটি ছাত্রাবাসে থেকে নওগাঁ সরকারি কলেজে লেখাপড়া করছিল নিয়ামতপুর উপজেলার শিবপুর (বলদাহার) গ্রামের সাইদুর রহমানের ছেলে শরিফুল ইসলাম। ভিকটিম ও শরিফুলের অবস্থান পাশাপাশি হওয়ায় উভয়ের মধ্যে সখ্যতা গড়ে উঠে। এসব বিষয় নিয়ে স্বামী শহিদুল ইসলামের সঙ্গে ভিকটিমের ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। ভিকটিম বাবার বাড়ি মান্দা উপজেলার বিলকরিল্যা গ্রামে বসবাসকালে শরিফুল ইসলাম বিয়ের প্রলোভন দিয়ে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিয়ের কথা বলে শরিফুল আবারো তাদের বাড়ি আসে। বিষয়টি জানতে পেরে সাবেক ইউপি সদস্য সামসুল আলম মন্টু ও শহিদুল ইসলাম আদালতের মাধ্যমে বিয়ের কথা বলে তাদের একটি ঘরে রাত যাপনের সুযোগ করে দেয়। ওই রাতে শরিফুল ইচ্ছের বিরুদ্ধে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। পরদিন উভয়কে ঘরে আটকে রেখে ভিকটিমের বাড়ির খলিয়ানে সালিশের আয়োজন করা হয়। সালিশের নেতৃত্ব দেন সাবেক ইউপি সদস্য সামসুল আলম মন্টু। বৈঠকে শরিফুলের বাবা, চাচাসহ নিকটাত্মীদের ডেকে নেওয়া হয়। হাজির করা হয় নিকাহ রেজিষ্টারকে। তাদের উপস্থিতিতে দিনভর চলে বিয়ের নামে টালবাহানা। এ অবস্থায় ছেলের বাবা সাইদুর রহমানের নিকট থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়ে বৈঠক থেকে কৌশলে তাদের পালিয়ে দেয় মাতবররা। এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে বিয়ের খরচের কথা বলে ভিকটিম পরিবারের কাছ থেকে মাতবররা আরো ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনিছুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ধর্ষককে গ্রেফতার করা হয়েছে অনাান্য আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষা নওগাঁ সদর হাসপাতালে সম্পূন্ন হয়েছে বলে তিনি জানান ।