Pages

Categories

Search

আজ- বৃহস্পতিবার ১৫ নভেম্বর ২০১৮

মনোহরদীতে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে সাবেক অধ্যক্ষ আটক

জুলাই ১৯, ২০১৬
অপরাধ, আইন- আদালত, ধর্ম, নরসিংদী
No Comment

news_img_87409
মো. ইসমাইল হোসাইন খান, নরসিংদী থেকে: নরসিংদীর মনোহরদীতে ইসলাম ধর্ম নিয়ে বিতর্কিত ফতোয়া দেয়ায় আব্দুল মতিন (৫৪) নামের সাবেক এক অধ্যক্ষকে আটক করেছে পুলিশ। আব্দুল মতিন উপজেলার ধরাবান্দা ফাযিল (ডিগ্রী) মাদরাসার সাবেক অধ্যক্ষ ছিলেন।
পুলিশ, মামলার এজাহার ও এলাকাবাসির সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আবদুল মতিন তাঁর নিজ এলাকা লেবুতলা ইউনিয়নে ‘সত্য গোপন থাকে না’ নামের একটি ধর্মীয় বই বিতরণ করছেন। বইটি কুষ্টিয়ার আমিরুল ইসলাম নামের একজনের লেখা। পাশাপাশি ওই বইয়ের উদ্ধৃতি দিয়ে প্রচার করছেন যে, ইসলাম ধর্মে পাঁচ ওয়াক্ত নামাযের পরিবর্তে দুই ওয়াক্ত এবং রমযানের মাসের ত্রিশ রোজার পরিবর্তে দশটি রোজা থাকলেই যথেষ্ট। তাছাড়া হাদিস শরীফ ও নবী করীম (স:) বলতে কেউ নেই এমন সব বিতর্কিত মন্তব্য মানুষের মাঝে প্রচার করে আসছেন।
আব্দুল মতিনের এসব কথা স্থানীয়দের মাঝে ছড়িয়ে পড়লে ধর্মপ্রাণ লোকজন তাকে ইসলাম ধর্ম নিয়ে বিভ্রান্তিকর বক্তব্য প্রচার না করার অনুরোধ জানান। আলেমদের নিষেধ থাকা সত্বেও আব্দুল মতিন তার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছিলেন। পরে উপজেলার বিভিন্ন মাদরাসার শিক্ষক, মসজিদের ইমাম ও মুসল্লিরা মিলে গত সোমবার নরসিংদী জেলা প্রশাসকের কাছে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। জেলা প্রশাসকের নির্দেশে ঐ দিন রাতেই বিতর্কিত আলেম মাওলানা আব্দুল মতিনকে মনোহরদী থানা পুলিশ আটক করে।
মনোহরদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম আলমগীর হোসেন বলেন, ‘জনপ্রতিনিধি ও আলেম ওলামাদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ধর্ম অবমাননা এবং অপব্যাখ্যার অভিযোগে ধরাবান্দা মাদ্রাসার অধ্যক্ষকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। স্থানীয় মির্জাপুর মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আবদুর রশিদ বাদি হয়ে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ায় মনোহরদী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।