Pages

Categories

Search

আজ- বৃহস্পতিবার ১৫ নভেম্বর ২০১৮

ভাড়াটিয়ার তথ্য যাচাই করুন : ডিএমপি কমিশনার

জুলাই ২৪, ২০১৬
জাতীয়
No Comment

Asaduzzaman Mia- (10)গাজীপুর দর্পণ ডেস্ক:
বাসা ভাড়া দেয়ার পূর্বে ভাড়াটিয়ার তথ্য জানতে এবং জাতীয় পরিচয়পত্র ও পাসপোর্টের ফটোকপি সংরক্ষণের আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া। রোববার দুপুরে ঢাকা মহানগর পুলিশের নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, কাউকে বাসা ভাড়া দেয়ার পূর্বে ভাড়াটিয়ার তথ্য জানুন, তার জাতীয় পরিচয়পত্র ও পাসপোর্টের ফটোকপি সংরক্ষণ করুন। একসঙ্গে এসবের একটি কপি নিকটস্থ থানায় জমা দিন। এতে আপনার আমার সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।

গুলশান হামলার পর যে দুটি বাসার মালিককে গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের সম্পর্কে ডিএমপি কমিশনার বলেন, দুটো বাসার ভাড়াটিয়ার তথ্য ফরম বাসার মালিক জমা দেননি। তারা সরল বিশ্বাসে ভাড়াটিয়ার তথ্য ফরম পুলিশকে জমা দেননি নাকি ইচ্ছাকৃতভাবে জমা দেননি তা তদন্ত করা হচ্ছে। গুরুত্বপূর্ণ আলামতও আমরা সংগ্রহ করেছি। অপরাধীদের সহযোগিতা করলে বাসার মালিক ও ভাড়ার প্রক্রিয়ায় জড়িতদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

কমিশনার বলেন, ‘ভাড়াটিয়াদের তথ্য ফরম সকলেই পূরণ করবেন। থানায় জমা দেবেন। ভাড়াটিয়ার পরিচয় নিশ্চিত না হয়ে ভাড়া দেবেন না। বরং পরবর্তীতে ঝামেলা হলে বাসার মালিক আইনি প্রক্রিয়ায় ফেঁসে যেতে পারেন। আমরা ঢাকা মহানগরীর সকলের সহযোগিতা চাচ্ছি। একটি সময় একটি পারফেকশন আসবে, তৈরি হবে চমৎকার ডাটাবেজ।’

তিনি আরো বলেন, আমরা প্রত্যাশা করবো নাগরিকরা তাদের নিজেরা দায়িত্ব নিয়ে তথ্য ফরম পূরণ করে জমা দেবেন। আমরা থানায় থানায় কাউন্সেলিং করেছি। প্রত্যেক মহল্লায় যাচ্ছি। কে ভাড়াটিয়া তথ্য ফরম জমা দিয়েছে আর কে দেয়নি, কারা গাফিলতি করছেন তা আমরা খতিয়ে দেখছি।

যদি কেউ তথ্য গোপন করে তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হবে কিনা জানতে চাইলে কমিশনার বলেন, কোনো বাসার মালিক বা ভাড়া দেয়া ও নেয়ার ক্ষেত্রে জড়িত কেউ তথ্য গোপন করলে দেশের প্রচলিতে আইনে তথ্য গোপনকারীদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, একসময় সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানোর ক্ষেত্রে আগ্রহ কম দেখা যেত। আজকে দেখেন সবাই নিজ উদ্যোগে সচেতন হচ্ছে। সবাই অফিস-আদালত, বাসা, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সিসিটিভি ক্যামেরা ও আর্চওয়ে লাগাচ্ছে। জননিরাপত্তা বিঘ্নিত করে আর কেউ ছাড় পাবে না।