Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ভালুকায় জবর দখল প্রতিরোধে রাস্তায় ঝাড়ু লাঠি হাতে মহিলারা

নভেম্বর ১৯, ২০১৭
ময়মনসিংহ
No Comment


মোঃ রফিকুল ইসলাম রফিক, বিশেষ প্রতিনিধি: ভুমি দস্যুদের খপ্পর থেকে রক্ষা পেতে এবার প্রকাশ্য দিবালোকে রাস্তায় ঝাড়ু লাঠি হাতে অবস্থান নিয়েছে পুরুষের পাশাপাশি মহিলা ও শিশুরাও। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার সকালে উপজেলার হবিরবাড়ী ইউনিয়নের পাড়াগাঁও এলাকায়।

স্থানীয় সুত্র জানায়, উল্লেখিত এলাকার একটি এগ্রো ফার্মের পক্ষে স্থানীয় ভুমি দস্যুরা শনিবার রাত ৮টার দিকে প্রায় দ’শতাধিক লোকজন নিয়ে পিলার ও কাঁটা তারের বেড়া দিয়ে স্থানীয় আঃ রশিদের এক বঘিা ও সিদ্দিক কুমারের এক বিঘা জমি সহ ইউনিয়ন পরিষদের রাস্তা বাউন্ডারী করে জবর দখল করে নেয়। রাতের আঁধারে চোখের নিমিষেই মাত্র আধা ঘন্টার ব্যাবধানে কাঁটা তারের বাউন্ডারী করে চলে যায় দখলবাজরা।

ঘটনাটি টের পেয়ে স্থানীয় লোকজন রাত আনুমানিক ১০টার দিকে উক্ত বাউন্ডারী ভেঙ্গে ফেলে। রাত ২টার দিকে আবারো উক্ত বাউন্ডারী পুনরায় নির্মান করলে সকালে খোঁজ পায় এলাকার লোকজন। ভোরে আবারো স্থানীয়রা উক্ত বাউন্ডারী ভেঙ্গে ফেলে। এ সময় দখলবাজরা এগিয়ে আসার চেষ্ঠা করলে স্থানীয়দের প্রতিরোধ গড়ে তোলে। বাউন্ডারী নির্মানের প্রতিবাদে পাড়াগাঁও গাংগাটিয়া এলাকার নারী-পুরুষ ভালুকা সখিপুর রাস্তা অবরোধ করে। এ সময় এলাকার বিক্ষুব্ধ পুরুষদের সাথে ঝাড়ু লাঠি নিয়ে অবস্থান নেয় মহিলা ও শিশুরাও।

প্রায় ঘন্টা ব্যাপী অবরোধের এক পর্যায়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান তোফায়েল আহম্মেদ বাচ্চু উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) দীপায়ন দাস শুভ এবং ভালুকা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মামুন অর রশিদ কে সাথে নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। এ সময় বিকেল ৪টায় উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে বিষয়টি’র সুষ্ঠু সমাধান করার আশ্বাষ দিলে রাস্তা অবরোধ প্রত্যাহার করা হয়। স্থানীয় লোকজন জানান স্থানীয় ভুমি দস্যুরা এলাকায় অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে মহড়ায় থাকায় তারা আতংকিত।

দুপুরে সওদাগর(৫০) নামে স্থানীয় একজনকে ধরে নিয়ে মারধোর করেছে দখলবাজরা। সওদাগরের বিরুদ্ধে দখলবাজদের অভিযোগ সে লোকজনকে সংগঠিত করার সাথে জড়িত। তাকে ফার্মের আম বাগান থেকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা। প্রভাবশালী নেতার নাম ভাঙ্গিয়ে রাস্তা সহ স্থানীয় মালিকানা জমি জবর দখল করার চেষ্ঠা চালানো হচ্ছে বলে স্থানীয় লোকজনের অভিযোগ।

সম্মিলিত ভাবে সবাই রাস্তায় কেন জানতে চাইলে স্থানীয়রা জানান ভুমি দস্যুরা আজ একজনেরটা অন্য দিন আরেক জনেরটায় হাত দিবে তাই এলাকার নারী-পুরুষ আবালবৃদ্ধবনিতা সোচ্চার হয়েছে। আমরা সংগঠিত থাকলে কারো সম্পত্তিতেই হাত দিতে পারবে না। ভুমি দস্যুদের খপ্পর থেকে নিজেদের রক্ষা করতে সবাই আজ ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (সন্ধায়) উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে এ নিয়ে বৈঠক চলছিল বলে সুত্র জানায়।