Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ভারতে চিকিৎসা জন্য গিয়ে ১২ ঘন্টার ব্যবধানে পিতা ও পুত্রের মৃত্যু

গাজীপুর দর্পণ রিপোর্ট: গাজীপুর থেকে ভারতে চিকিৎসার জন্য গিয়ে বাবা-মা’র সামনেই এক স্কুল ছাত্র মারা গেছে। পুত্রের মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে প্রায় ১২ ঘন্টার ব্যবধানে সেখানে তার বাবা রফিক মন্ডলও (৪৫) মারা গেছে। স্বামী ও সন্তানের লাশ নিয়ে ভারতে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন রফিকের স্ত্রী।

এলাকাবাসি ও স্বজনরা জানায়, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের গোবিন্দবাড়ি এলাকার মুন্সিবাড়ির রফিক মন্ডলের ছেলে আসাদ মন্ডলের (১৩) ফুসফুসে সম্প্রতি ক্যান্সার রোগ ধরা পড়ে। আসাদ স্থানীয় রেডিয়েন্ট প্রি-ক্যাডেট এন্ড হাই স্কুলের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র। আসাদ ছাড়াও রফিক মন্ডলের একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে। ভারতে ছেলের চিকিৎসার জন্য গত শনিবার আকাশ পথে রফিক মন্ডল তার স্ত্রী, ছেলে আসাদ ও চাচা সাইফুলকে সঙ্গে নিয়ে দুপুরে কলিকাতা বিমান বন্দরে পৌছেন। বিমান থেকে নামার পরপরই আসাদ অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। আশংকাজনক অবস্থায় তাকে ওই বিমান বন্দরের পাশে একটি হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার রাত আড়াইটার দিকে আসাদ মারা যায়। একমাত্র ছেলের মৃত্যুতে রফিক মন্ডল মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েন। একপর্যায়ে সোমবার দুপুরে তিনি হঠাৎ অসুস্থ্য হয়ে মারা যান। স্বামী ও সন্তানের মৃত্যুতে রফিক মন্ডলের স্ত্রীও দিশেহারা হয়ে উঠেন এবং মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েন। সেখানে বসে তিনি স্বামী ও সন্তানের লাশ ফিরিয়ে আনার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এদিকে পিতা ও পুত্রের মৃত্যুর খবর পেয়ে গাজীপুরের গ্রামের বাড়িতে এখন চলছে তাদের স্বজনদের আহাজারি। এতে আকাশ বাতাস ভারী হয়ে উঠে।

রফিক মন্ডলের চাচা নাসির মন্ডল জানান, আনুষ্ঠানিকতা শেষে মঙ্গলবার আসাদের লাশ দেশে আনা হচ্ছে। তবে রফিক মন্ডলের লাশ ফিরিয়ে আনতে কিছুটা দেরী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।