Pages

Categories

Search

আজ- মঙ্গলবার ২০ নভেম্বর ২০১৮

ভারতের সঙ্গে সামরিক চুক্তি হবে নিরাপত্তার জন্য হুমকি …… বাসদ নেতা কমরেড রফিকুল ইসলাম

মোঃ শাহ আলম সরকার সাজু, গোবিন্দগঞ্জ (গাইবান্ধা ) প্রতিনিধিঃ ভারতের সঙ্গে সামরিক চুক্তি অপয়োজনীয় উল্লেখ করে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্ররিক দল বাসদের কেন্দ্রীয় নেতা কমরেড রফিকুল ইসলাম রফিক বলেছেন ,ভারতের সঙ্গে সামরিক সহযোগিতা সংক্রান্ত সমঝোতা চুক্তি ও পাঁচ হাজার কোটি টাকার অস্ত্র কেনা অপ্রয়োজনীয় এটা রাষ্ট্রের অপচয় এবং জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি ।
সোমবার বাসদ গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শাখার আহবায়ক বিশিষ্ঠ সাংবাদিক কমরেড রফিকুল ইসলাম রফিক এক বিবৃতিত্বে বলেন, চীন থেকে সাবমেরিন কেনার কারনে এখন যদি কথিত ভারসাম্য রক্ষায় ভারতের চাপে তাদের সঙ্গে অনাক্ষাঙ্খিত সামরিক সহযোগিতা চুক্তি ও অস্ত্র কিনতে হয়। কোন ভাবেই তা গ্রহনযোগ্য হতে পারেনা। তাই এই ধরনের সমঝোতা চুক্তি বাংলাদেশের জোট নিরপেক্ষ নীতি ও শান্তিপৃর্ণ সহাবস্থানের স্বীকৃত নীতির পরিপন্থী।
গণতান্ত্রিক বামমোচার আহবায়ক ও তেল গ্যাস, বিদ্যুৎ, বন্দর সম্পদ রক্ষা জাতীয় কমিটির গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শাখার সদস্য সচিব কমরেড রফিকুল ইসলাম আরো বলেন, তাছাড়া প্রতিবেশীদের কাছ থেকে বাংলাদেশের এমন কোন নিরপত্তা ঝঁকি বা সামরিক হুমকি নেই যার জন্য ভারতের সাখে সামরিক সহযোগীতা সংক্রান্ত সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর করতে হবে। তিনি আরো বলেন, তিস্তাসহ আন্তর্জাতিক অভিন্ন নদীর পানি প্রবাহে বাংলাদেশের ন্যায্য হিস্যা সংক্রান্ত চুক্তি সমুহ নানা অজুহাতে ঝুলিয়ে রেখে ভারতের অগ্রাধিকার অনুযায়ী চুক্তি ও সমঝোতা স্বাক্ষর গ্রহনযোগ্য হতে পারে না।
রফিক বলেন, তিস্তা চুক্তির যেখানে খবর নেই উজানে পানি প্রত্যাহার করে ভারতের আন্তনদী সংযোগ প্রকল্প, টিপাইমুখে বাঁধ প্রভৃতি প্রকল্প সেখানে অব্যাহত আছে। সীমান্তে বিএসএফ কতৃক বাংলাদেশীদের বর্বরোচিত হত্যা সেখানে অব্যাহত রয়েছে। ভারতের কাঁটাতারের বেড়ায় বাংলাদেশ ঘেরাও, সুন্দরবন বিনাশী রামপাল প্রকল্প যখন অব্যাহত রয়েছে ভারতের সাথে বাংলাদেশের বানিজ্যিক ভারসাম্যে বিশাল ঘাটতি প্রভুতি অমীসাংসিত বিষয় সমুহের যোক্তিক ও ন্যায্য সুরহা না করে বাংলাদেশের এজেন্ডা সমুহকে টেবিলের নীচে রেখে ভারতের অগ্রাধিকার অনুয়ায়ী চুক্তি সমঝোতা দেশের মানুষ গ্রহন করবে না।