Pages

Categories

Search

আজ- বৃহস্পতিবার ১৫ নভেম্বর ২০১৮

বয়লার বিস্ফোরণ ও অগ্নিকান্ড মামলার তদন্ত চলছে …..স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

অগাষ্ট ৯, ২০১৭
টঙ্গী
No Comment

টঙ্গী থেকে হাসান মামুন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, ‘টঙ্গীর টাম্পাকো ফয়েলস কারখানার বয়লার বিস্ফোরণ ও অগ্নিকাণ্ডের মামলার তদন্ত চলছে। শিগগরিই সুষ্ঠুভাবে বিচার কাজ সম্পন্ন হবে। নিহতের ঘটনায় পুলিশ একটি তদন্ত রিপোর্ট দিয়েছে। পাশাপাশি পৃথক আরেকটি তদন্তও হয়েছে। সবগুলো তদন্তই শেষ হয়েছে। এ ঘটনায় যথাযোগ্যভাবেই বিচার কাজ শেষ হবে। বুধবার দুপুরে টাম্পাকো ফয়েলস কারখানার নতুন ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।
টাম্পাকো গ্রুপের চেয়ারম্যান ও বিসিক শিল্প মালিক সমিতির সভাপতি ড. সৈয়দ মকবুল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল এমপি। গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও টঙ্গী পৌরসভার সাবেক মেয়র অ্যাডভোকেট আজমত উল্লা খান, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আসাদুর রহমান কিরণ, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মোঃ মতিউর রহমান মতি, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ, টাম্পাকো গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাফিউস সামী আলমগীর, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ্ব আব্দুল কুদ্দুস, শ্রমিক নেতা মতিউর রহমান বি কম, টঙ্গী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা মোঃ ফজলুল হক, গাজীপুর মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিল্লাল হোসেন, বীরমুক্তিযোদ্ধা হুমায়ুন কবিরসহ প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
আয়োজকরা জানান, নতুন ভবনটি একটি গ্রিন ফ্যাক্টরি হিসেবে আত্ম প্রকাশ করতে যাচ্ছে। এর বাৎসরিক উৎপাদন ক্ষমতা ১৮ হাজার ৫০০ টন। প্যাকেজিং খাতে এটি একটি সর্বাধুনিক কারখানা হবে। প্রস্তাবিত কারখানাটি থেকে ১৫০ কোটি টাকা সরকারের রাজস্ব খাতে জমা হবে এবং অন্তত ৫০০ শ্রমিকের কর্মসংস্থান হবে।
উল্লেখ্য, গত বছরের ১০ সেপ্টেম্বর টাম্পাকো ফয়েলস কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ৪১ জন শ্রমিক নিহত হয়। এ ঘটনায় পুলিশ ও নিহতের স্বজনদের পক্ষ থেকে দুটি মামলা হয়েছে।