Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ২১ নভেম্বর ২০১৮

বদলগাছীতে হেলাল হত্যা ঘটনায় চেয়ারম্যান সালামসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা

অগাষ্ট ২২, ২০১৭
অপরাধ, আইন- আদালত, নওগাঁ, হত্যা
No Comment


মোঃ এমদাদুল হক দুলু, বদলগাছী (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর বদলগাছীতে বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার চুরির অভিযোগে হেলাল হত্যা ঘটনায় বদলগাছী সদর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সালামসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। অপরদিকে ট্রান্সফরমার চুরির ঘটনায় হত্যা কান্ডের শিকার হেলালসহ ৩ জনকে আসামী করে থানায় একটি চুরির মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত রোববার দুপুরের পর হেলালের বড় ভাই বেলাল হোসেন বাদী হয়ে চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম, সানাউল হক হিরো, পিন্টু হোসেন, খোরশেদ আলম, আলমগীর হোসেন, অর্জুন কুমার, এরশাদ, গোলাম মর্তুজা রেজা চৌধুরী । অপরদিকে সাবেক মেম্বার গোলাম মর্তুজা রেজা চৌধুরী বাদী হয়ে হত্যাকান্ডের শিকার হেলালসহ ৩জনকে আসামী করে বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার চুরির অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করে।
উল্লেখ্য গত ১৯ আগষ্ট শনিবার দিবাগত রাতে কেবা কাহারা চুরি করে নিয়ে যায়। এর পরের দিন রোববার দুপুরে উপজেলার কোলা ইউপির গয়রা গ্রামের মৃত আব্দুর রাজ্জাক এর ছেলে হেলাল হোসেন (৩৫) সাইকেল যোগে ওই সাতগাছী গ্রামে গিয়ে একটি খরের পালায় তার একটি ব্যাগ রয়েছে বলে সে খোঁজাখুজি করছিল। ইতি মধ্যে ওই খরের পালার মালিক দুই মহিলা দিয়ে রোববার সকালে খরের পালাটি ভেঙ্গে খলিয়ানে রোদ্রে মেলে দিতে গিয়ে একটি ব্যাগ পায়। ব্যাগটির ভিতরে ছিল ট্রান্সফরমারের কয়েলের প্রায় ২০ কেজির মত তামার তার, তার কাটার ব্লেড, ট্রান্সফরমার খোলার অন্যান্য যন্ত্রাংশ। কিন্তু হেলাল ওই খরের পালার মালিকের বাড়ির লোকজনকে ব্যাগের কথা জিজ্ঞাসা করলে তারা কোন ব্যাগ পায়নি বলে জানান। যেহেতু ব্যাগের খোঁজ করছিল এতে ঐ খরের পালার মালিক সনজিত সন্দেহ করেন এই লোকটি ট্রান্সফরমার চুরি করেছে। এই খবরটি ভাতশাইল গ্রামের সাবেক মেম্বার ও ওই গভীর নলকুপের অপারেটর গোলাম মর্তুজা রেজা চৌধুরীকে মোবাইল ফোনে জানানো হয়। ব্যাগ খুঁজে না পেয়ে হেলাল ভাতশাইল গ্রামের উপর দিয়ে বাড়ি ফিরছিল। এ সময় রেজা মেম্বার পথিমধ্যে হেলালকে আটক করে তার মটর সাইকেলে তুলে নিয়ে ঘটনাস্থল সাতগাছী গ্রামে যায়। হেলালকে দেখে সাতগাছি গ্রামের লোকজন জানায় এই লোকটি ২দিন থেকে সাতগাছি গভীর নলকুপের আশে-পাশে ঘুরাঘুরি করছিল এবং সে এসে ব্যাগ খোঁজাখুজি করছিল। এ সময় উত্তেজিত জনতা হেলালকে চোর সন্দেহে চড়থাপ্পর দিয়ে বিকেল ৩ টায় চার্জার ভ্যান যোগে বদলগাছী সদর ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে আসে। সেখানে ইউনিয়ন পরিষদের হল রুমে হেলালকে আটকে রেখে মারপিট করলে গরুত্বর অসুস্থ হয়ে পড়ে। গুরুত্বর অসুস্থ অবস্থায় রাত ৮ টায় হেলালকে বদলগাছী স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে জরুরী বিভাগে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু ঘটে।