Pages

Categories

Search

আজ- মঙ্গলবার ২০ নভেম্বর ২০১৮

বদলগাছীতে স্কুল মাঠ হাট, দুর্ভোগের শিকার শিক্ষার্থীরা

জুলাই ১২, ২০১৭
অনিয়ম, নওগাঁ
No Comment


এমদাদুল হক দুলু, বদলগাছী ( নওগাঁ )থেকে: নওগাঁর বদলগাছী উপজেলা সদরে অবস্থিত সুনামধন্য দুটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মডেল সরকারী প্রার্থমিক বিদ্যালয় ও মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়। এ দ’টি বিদ্যালয়ের মাঠ ও ছাত্র-ছত্রীদের যাতায়াতের রাস্তা দখল করে চলছে হাটবাজার। এতে করে ছাত্র-ছাত্রীদের পাশাপাশি শিক্ষক-শিক্ষিকা ও কমলমতি শিক্ষার্থীরা চরম বিপাকে পড়েছে।স্কুল মাঠ থেকে হাট সরানোর জন্য ইপজেলা প্রশাসন গত ০১ লা বৈশাখের পূর্বে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিলে ও পরবর্তীতে তা ভেস্তে যায় । স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের সুবিধার্থে সিদ্ধান্তক্রমে অর্ধেক মাঠে হাট বসতো । এখন সবকিছু উপেক্ষা করে রাস্তাঘাটসহ পুরো মাঠ দখল করে বসানো হচ্ছে হাট ।স্কুল মাঠে যানবাহন ও হাটুরিয়াদের চলাচলে স্কুলমাঠ কাঁদায় পরিপূর্ন। এতে যেমন ছেলে মেয়েদের খেলাধুলার পরিবেশ নষ্ট হয়েছে তেমনি ব্যাহত হচ্ছে শিক্ষাদান। গতকাল বুধবার সকালে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, এক হাটু কাদাঁর মধ্যে বিদ্যালয় দুটির মাঠ ও রাস্তা দখল করে কাঁচা তরিতরকারির পাইকারী হাট বসিয়ে দেদারছে কেনা বেচা চলছে। দুর দুরান্ত থেকে আগত পাইকারেরা বড় বড় ট্রাক ও ভুটভুটি এনে স্কুল মাঠ দখল করে রেখে কাঁচামাল লোড আন-লোড করছে। সেই সাথে উপজেলার কৃষকেরা ভটভটি ও ভ্যান যোগে কাঁচা তরিতরকারী এনে বাজারে বিক্রি করছে।বদলগাছীর প্রাণকেন্দ্র চৌরাস্তার মোড় থেকে শুরু করে স্কুল মাঠ ও থানার গেইট পর্যন্ত দখল করে হাটবাজার বসলে ও দেখার কেউ নেই । স্কুল মাঠ ও রাস্তা দখল করে সপ্তাহে শনিবার ও বুধবার দুই দিন হাট বসে। এই দুই দিন দুটি স্কুলের প্রায় ১২০০ শত শিক্ষার্থী স্কুলে যেতে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কমলমতি শিশু শিক্ষার্থীরা ভ্যান গাড়ি,ভুটভূটি, সাইকেল ও ট্রাক সহ লোকজনের ভিড়ের মধ্যে দিয়ে এপাশ ওপাশ কাটিয়ে কোন রকমে স্কুলে যাতায়াত করে। ছেলে শিক্ষার্থীরা হাটের ভীড়ের মধ্যে ঠেলা ঠেলি করে যাতায়াত করলে ও মেয়ে শিক্ষার্থীরা পড়ে যায় চরম বিপাকে । এই কারনে অনেক অভিভাবকেরা হাট-বাজারের দিন তাদের ছেলে মেয়েদের স্কুলে যেতে দেয় না। কারন স্কুলে যাতয়াতের পরিবেশের অভাবে সপ্তাহে দুই দিন যদি শিক্ষার্থীরা স্কুলে যেতে না পারে তাহলে বৎসরে প্রায় ১ শত দিন তারা ক্লাস থেকে বঞ্চিত হয়। এ ছাড়া ও বিভিন্ন দিবস ও এস.এস.সি পরীক্ষা চলাকালিন সহ প্রায় ৬ মাস পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ক্লাস থেকে বঞ্চিত থাকে। বিষয়টি নিয়ে অভিভাবকেরা চরম উদ্বিঘœ হয়ে পড়েছে । এমন কি থানা পুলিশের গেইট পর্যন্ত দখল করে হাট-বাজার চললে ও পুলিশ প্রশাসনের ও কোন মাথা ব্যাথা নেই। স্থানীয় একজন অভিভাবক জানায় গত কয়েক দিন তার ছেলে কে কাঁধে করে স্কুলে পৌঁছে দিতে হচ্ছে
এ বিষয়ে মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দেলোয়ার হোসেন জানান, হাটের কারনে শিক্ষার পরিবেশ বিঘিœত হচ্ছে । হাটবারের দিন জন তার গুনগুন শব্দ সেইসাথে হকারদের মাইকের শব্দে কিছু শোনা যায় না এবং বিষয়টি নিয়ে বহুবার হাট-বাজার কর্তৃপক্ষসহ উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করে ও কোন লাভ হয় নি।

এ বিষয়ে পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুরেশ সিংহ এর সাথে ফোনে যোগাযোগ করার হলে তিনি জানান আমি আর কি বললো। কাঁদাপানিতে ছেলে মেয়েরা স্কুলে আসতে পারছেনা । উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ হুসাইন শওকত এর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান বিষয়টি সমাধান খুবই জরুরী কিন্ত নতুন হাটের জায়গা হাট বসানোর উপযোগী না হওয়া পর্যন্ত হাট সড়িয়ে নেওয়া যাচ্ছে না।