Pages

Categories

Search

আজ- শনিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৮

বদলগাছীতে শিক্ষিকার প্রহারে ১০ শিক্ষার্থী আহত

আব্দুর রউফ রিপন, নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর বদলগাছীতে স্কুল শিক্ষিকার প্রহারে ১০ জন শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। আহতরা সবাই ৫ম শ্রেনীর মডেল টেস্ট পরীক্ষার্থী। এদের মধ্যে সাত জন চলতি মডেল টেস্ট পরীক্ষায় অংশ নিতে পারলেও বাঁকী তিনজন অসুস্থায় অংশ নিতে পারেনি।

বুধবার উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের গয়েশপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় শিক্ষার্থী নুসরাত জাহানের বাবা ছারোয়ার জাহান চৌধুরীর বৃহস্পতিবার বদলগাছী উপজেলা শিক্ষা অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ঘটনার দিন ক্লাসের ফাঁকে ৫ম শ্রেনীর শিক্ষার্থী ১০/১২ জন সহপাঠি মিলে স্কুলের বাহিরে ঝাল মুড়ি খেতে যায়। এই অপরাধে স্কুলের সহকারি শিক্ষিকা নাদিরা আক্তার ১০ জন শিক্ষার্থীকে ডেকে নিয়ে তাদের ডান হাতের তালুতে বেত্রাঘাত করে। এতে ১০ জন শিক্ষার্থী আহত হয়। এদের মধ্যে নুসরাত জাহান, মোশারাত মালিহা চৌধুরী ও সুমাইয়া মাহমুদা বাড়ি গিয়ে বিষয়টি বাবা-মাকে জানায়।

ওইদিন গ্রাম্য ডাক্তার দ্বারা তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হলেও তিন শিক্ষার্থী সুস্থ্য না হওয়ায় বৃহস্পতিবার মডেল টেস্ট পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেনি। বিষয়টি প্রকাশ হয়ে পড়ায় অভিভাবক ছারোয়ার জাহান চৌধুরী উপজেলা শিক্ষা অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগের পর ওই তিন শিক্ষার্থীকে বদলগাছী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে চিকিৎসা দেয়া হয়।

অভিযোগের বিষয়ে শিক্ষিকা নাদিরা আকতার বলেন, একটি ভুল বুঝাবুঝির বিষয়। ঘটনাটি পুরোপুরি সঠিক নয়। যা ঘটে তার চেয়ে বেশি রটে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: জাহিদ নজরুল চৌধুরী বলেন, তিন শিক্ষার্থীর হাতের তালু ফোলা ও জখম রয়েছে। মোশারাত মালিহা চৌধুরীর ডান হাতের তালুসহ বৃদ্ধাঙ্গলীর গোড়ায় সামান্য টাকচারও হয়েছে। হাতে ব্যান্ডেস করে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়ি পাঠানো হয়েছে।

বদলগাছী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো: ছানাউল হাবিব বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগের প্রেক্ষিতে শিক্ষিকা নাদিরা আক্তারকে বাধ্যতামুলক ছুটিতে পাঠানো হয়। আহত তিন শিক্ষার্থীকে বিশেষ ব্যবস্থায় পরবর্তীতে পরীক্ষা নেয়া হবে। আর ঘটনাটি তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।