Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

বকেয়া বেতনের দাবিতে গাজীপুরে শ্রমিক বিক্ষোভ, স্মারকলিপি

গাজীপুর দর্পণ রিপোর্ট: বকেয়া বেতনের দাবিতে গাজীপুরের টঙ্গীর মিল গেইট এলাকার টপস এন্ড বটমস লিমিটেড নামের কারখানার শতাধিক শ্রমিক রোববার সকালে জেলা প্রশাসন চত্বরে বিক্ষোভ ও স্মারকলিপি প্রদান করেছে।

কারখানার সুয়িং অপারেটর সাথী আক্তার জানান, গত জুনে ঈদের ছুটির পর ৬জুন কারখানা খোলার কথা ছিল। ৬জুন সকালে কাজে যোগ দিতে গিয়ে কারখানা বন্ধ দেখতে পাই। কিন্তু ওই বন্ধের জন্য কোন নোটিশ ছিল না। কারখানা কর্তৃপক্ষ আমাদের কোন কোন বেতনও দিচ্ছে না। একাধিকবার বকেয়া বেতন-ভাতাদি পরিশোধের আশ্বাস দেয়া হয়। সর্বশেষ বেতন দেয়ার কথা ১৮আগস্ট। কিন্তু ওই দিনও বেতন দেয়নি কর্তৃপক্ষ। পাওনাদির জন্য কারখানার এমডি ও ডাইরেক্টরদের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলেও তারা রিসিভ করেন না। এমতাবস্থায় আমারা সন্তানদের লেখাপড়ার খরচ, দোকান বাকি ও বাড়িভাড়া পরিশোধ করতে পারছি না। সামনে ঈদ-উল-আযহা। তাই আমরা শ্রম আইন অনুয়াযী সকল পাওনাদি পরিশোধের জন্য রোববার সকালে জেলা প্রশাসকের কাছে স্বারকলিপি দিয়েছি।

জাতীয় শ্রমিক লীগের গাজীপুর মহানগর শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক মো. ইব্রাহিম খলিল, একতা গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মো. কফিল উদ্দিন তাদের আন্দোলনের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেন এবং স্মারকলিপি দেয়ার সময় তারা উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসক দেওয়ান মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির জানান, শ্রমিকরা তাদের পাওনার জন্য স্মারকলিপি দিয়েছেন। এ ব্যাপারে কারখানা কতৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কারখানার এমডি মো. আশরাফুল ইসলাম জানান, সকল পাওনাদি পরিশোধ করে গত ২৬মে কারখানাটিতে ঈদের ছুটি দেয়া হয়। শ্রমিকদের কোন বকেয়া ছিলনা। আর্থিক সমস্যার কারণে কারখানাটি ৬জুন কারখানাটি আর চালু করা সম্ভব হয়নি। তবে বিজিএমইএ’র মধ্যস্থতায় শ্রমআইন অনুযায়ী আগামি ২৫ আগস্ট শ্রমিকদের এক মাসের বেসিক প্রদানের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। ওইদিন ঢাকায় বিজিএমইএ’র কার্যালয়ে তাদের ওই টাকা দেয়া হবে।