Pages

Categories

Search

আজ- বৃহস্পতিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

প্রধানমন্ত্রিকে বরন করে নিতে প্রস্তুত সান্তাহার শহর

ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০১৭
উন্নয়ন সংবাদ, বগুড়া, রাজনীতি, শীর্ষ সংবাদ
No Comment


বুলবুল আহমেদ, সান্তাহার (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহারে নির্মিত দেশের প্রথম মাল্টিস্টোরিড ওয়্যারহাউসের (অত্যাধুনিক বহুতল বিশিষ্ট খাদ্যগুদাম) উদ্বোধন করতে আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারী এক দিনের সফরে সান্তাহারে আসছেন প্রধানমন্ত্রি শেখ হাসিনা। এ উপলক্ষে সান্তাহারকে প্রস্তুত করা হয়েছে নতুন রূপে। প্রধান মন্ত্রিকে বরন কওে নিতে প্রস্তুত সান্তাহার শহর। চারদিকে সাজ সাজ রব পড়ে গেছে। ব্যস্ত সময় পার করছেন আ’লীগসহ অংঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা। নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

দলীয় সূত্রে জানা, আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারী রবিবার প্রথম বারের মতো সান্তাহারে প্রধান মন্ত্রির আগমন উপলক্ষে নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা। শহরে রাস্তার প্রধান প্রধান স্থানে তৈরি করা হয়েছে তোরন। সান্তাহার স্টেডিয়ামকে তৈরি করা হচ্ছে নতুন রূপে, বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানকে রং করে বাড়ানো হয়েছে সৌন্দর্য, রাস্তার দু’পাশ ছেঁয়ে গেছে নেতাদের রঙ্গিন ফেস্টুনে। গাছগুলোকে সাদা রঙ্গে রাঙ্গানো হয়েছে। এযেন নতুন কোন সান্তাহার শহর জন্ম নিচ্ছে। সান্তাহারে বহুতল খাদ্যগুদাম প্রকল্প পরিদর্শন ও উদ্বোধন ছাড়াও ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করবেন জেলার নন্দীগ্রাম উপজেলা কমপ্লেক্স ভবন, সোনাতলার বয়ড়া কারিগরি স্কুল অ্যান্ড কলেজ চত্বরে নির্মিত বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র, গাবতলী উপজেলার মোস্তাফিজার রহমান মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় চত্বরে নির্মিত বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র, শাজাহানপুর থানা ভবন, শাজাহানপুর উপজেলার সুলতানগঞ্জ হাই স্কুলে দৃষ্টি প্রতিবন্ধি শিশুদের জন্য নির্মিত হোস্টেল, বগুড়া প্রেস ক্লাব ভবনের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপনসহ আরো উন্নয়ন মূলক কাজের। সান্তাহারবাসীর পক্ষ থেকে আ’লীগ প্রধান প্রধানমন্ত্রিও কাছে বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজ হিসাবে ৯টি দাবী পেশ করা হবে। এরমধ্যে রয়েছে সান্তাহার সরকারি কলেজে সম্মান কোর্স চালু, সান্তাহার জংশন রেলওয়ে ষ্টেশনের আধুনিকায়ন, শহরের রথবাড়িতে ৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল চালু করা, সান্তাহার স্টেডিয়ামকে জাতীয়করন করাসহ আরো অনেক। এদিকে উপজেলা আ’লীগ ও তার অঙ্গ সংগঠনের কর্মীরা রাত-দিনে প্রধানমন্ত্রির জনসভা মঞ্চ, যাতায়াতের পথকে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন করা ও রাস্তার প্রধান প্রধান স্থানে মনোমুগ্ধকর তোরন তৈরিসহ বিভিন্ন কাজ শেষের দিকে। রাতের সান্তাহার শহরকে সাজানো হয়েছে নানা রঙ্গেও আলোয়। এযেন সান্তাহারবাসীর জীবনে নতুনরূপে প্রথমবারের মতো রঙ্গিন আলোয় আলোকিত সান্তাহার শহরকে দেখছেন। এদিন বিকাল ৩টায় প্রধানমন্ত্রি শেখ হাসিনা প্রধান অতিথি হিসাবে সান্তাহার স্টেডিয়ামে আ’লীগ আয়োজিত জনসভায় যোগদান করবেন।

আদমদীঘি উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম খাঁন রাজু জানান, আমাদের জীবনের বড় প্রাপ্তি আমাদের প্রাণের নেত্রী প্রধানমন্ত্রি শেখ হাসিনা এই প্রথম আমাদের সান্তাহারের মতো ছোট শহরে আসছেন। এই প্রাপ্তি সান্তাহার তথা অত্র এলাকাবাসীদের জন্য শ্রেষ্ঠ পাওয়া। এই পাওয়াকে চির সরনম্নীয় করে রাখার জন্য আমরা দলের নেতাসহ সবাই মিলে একযোগে কাজ করে যাচ্ছি। আমরা এই জনসভাকে ইতিহাসের পাতায় একটি নতুন অধ্যায় হিসাবে স্বর্ণাক্ষরে লিখে রাখতে চাই। তার আগমনে চারদিকে যেন ঈদের মতো আনন্দ ছড়িয়ে পড়েছে। সবাই ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রাণের নেত্রীকে বরন করে নেওয়ার জন্য। আমরা দলের নেতাকর্মীরা কোন কাজে ফাঁক রাখছি না। নেত্রীর জনসভা আমরা জনসমুদ্রে পরিণত করবো। এই জনসভা থেকে আমরা মুজিব সেনারা আবার নতুন করে শপথ নিবো নেত্রীর হাতকে আগামীদিনের জন্য আরো শক্তিশালী করার।

আদমদীঘি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব আনছার আলী মৃধা জানান, শেষ জীবনে এসে আমার প্রাণের নেত্রী শেখ হাসিনাকে আমাদের কাছে পাওয়ায় আমার জীবন ধন্য। শুধু আমি নই অত্র এলাকার প্রতিটি মুজিব সেনাদের দীর্ঘদিনে স্বপ্ন ছিলো নেত্রীকে একবার কাছে থেকে দর্শন করা। সেই স্বপ্ন আমাদের বাস্তবায়িত হতে যাচ্ছে। নেত্রীকে কোন উপঢৌকন দিয়ে তো আর খুশি করতে পারব না। তাই আমরা চেষ্টা করছি তার জনসভাকে স্মরন কালের শ্রেষ্ঠ জনসভায় পরিণত করার। আমরা প্রধান মন্ত্রীর কাছে আমাদের কিছু দাবী দাওয়া তুলে ধরবো। নিশ্চয় তিনি এই এলাকার মানুষের দিকে চেয়ে পূরণ করবেন। আমরা শনিবারের মধ্যে সকল প্রকার প্রস্তুতি সম্পন্ন করে জনসভা স্থল আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে তুলে দিবো।