Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

পীরগঞ্জে বিদ্যালয়ের মাঠে ঠিকাদারের নির্মান সামগ্রী

মার্চ ২৭, ২০১৮
অনিয়ম, রংপুর
No Comment

বখতিয়ার রহমান, পীরগঞ্জ ( রংপুর) : পীরগঞ্জের মথুরাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের খেলার মাঠটি এক ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের নির্মান সামগ্রীতে ভড়ে গেছে । ফলে কয়েকদিন ক্লাস হয়নি। নির্মান সামগ্রীর ধুলো, বালি আর কালো ধোঁয়া যেন বিদ্যালয়ের কক্ষগুলোতে না ঢোকে সেজন্য নীল পলিথিনে বিদ্যালয়টি মুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। ক্লাস না হওয়ায় শিক্ষার্থী-অভিভাবকরা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে।
একাধিক সুত্রে জানা গেছে, উপজেলা প্রকৌশল বিভাগের অধীনে উপজেলার বড়দরগা থেকে ভীমশহর পর্যন্ত ৪ কি.মি ২৪০ মিটার রাস্তা ২ কোটি ৩৬ লাখ টাকায় কার্পেটিংয়ের কাজ করা হচ্ছে। কাজটির ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ‘মেসার্স মসকুর রহমান’ তাদের নির্মান সামগ্রীসমুহ রাখার জন্য বড়দরগা ইউনিয়নের মথুরাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের খেলার মাঠ নির্বাচন করে। এরপর বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষকের সাথে মোটা অংকের ভাড়ায় গত ২২ মার্চ থেকে নির্মান সামগ্রী রাখা হয়। ওইদিন থেকেই বিদ্যালয়ের সকল ক্লাস স্থগিত করা হয়। তবে কৌশলগত কারণে বিদ্যালয়টি খোলা ছিল। নির্ম্না সামগ্রীর ধুলো, বালি এবং বিটুমিন গলানোর কাজে ব্যবহৃত সাইকেলের টায়ার পোড়ানোর কালো ধোঁয়া যেন বিদ্যালয়টির কক্ষসমুহে না ঢোকে, সেজন্য নীল পলিথিনে বিদ্যালয়ের সামন মুড়িয়ে দেয়া হয়। মাঠটির পূর্ব পাশে পাথর-বালি মিশ্রনের জন্য পন্ডান্ট মেশিন বসানো আছে। বিকট শব্দে চলছে সেটি। উত্তরেই সাইকেলের টায়ার জ্বালিয়ে বিটুমিন গলানো হচ্ছে। তীব্র কালো ধোঁয়ায় ওই এলাকা আচ্ছন্ন হয়ে আছে। কয়েকজন শিক্ষার্থী ও অভিভাবক নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানায়, কয়েকদিন ধরে ক্লাস হয়নি। এতো শব্দ আর ধুলো-বালি-ধোঁয়ায় স্কুলে থাকা যায় না।
প্রধান শিক্ষক মনোয়ার হোসেন মাঠ ভাড়া দেয়ার কথা অস্বীকার করে বলেন, আমার অজান্তেই ঠিকাদার পাথর-বালি-পিচ (বিটুমিন) সহ নির্মান সামগ্রী মাঠে ফেলেছে। ইউএনও বা শিক্ষা কর্মকর্তাকে এ ব্যাপারে অভিযোগ করেননি কেন এমন প্রশ্নের উত্তর তিনি এড়িয়ে যান ।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল মমিন ২৭ মার্চ মঙ্গলবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বলেন, আমি বিষয়টি জানার পরই ওই বিদ্যালয়ে গিয়েছি। সেখানকার অবস্থা খুবই খারাপ। ক্লাসও হয়নি। ওই প্রধান শিক্ষককে শিগগিরই শো-কজ করা হবে।