Pages

Categories

Search

আজ- মঙ্গলবার ২০ নভেম্বর ২০১৮

নিয়ম মানছেননা রাজাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকরা

সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৭
অনিয়ম, ঝালকাঠি, স্বাস্থ্য
No Comment


মোঃ আমিনুল ইসলাম, ঝালকাঠি সংবাদদাতাঃ ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তাররা নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে ইচ্ছেমতো অফিস করছেন। যখন খুশী তখন আসেন। আবার যখন খুশী তখন চলে যান। গত এক সাপ্তাহ যাবৎ সরেজমিনে দেখা গেছে, সকাল সাড়ে ৯টার আগে কোনো ডাক্তারই অফিসে আসেন না। অথচ সরকারী নিয়ম রয়েছে সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২ঃ৩০ মিনিট পর্যন্ত অফিস করা। যেমন সাড়ে ৯টার আগে অফিসে আসেন না। আবার অভিযোগ রয়েছে,সাড়ে ১২টা থেকে ১টার পরে আর অফিসে থাকেন না।

১৭ সেপ্টেম্বর সকাল ৯টা ৩৭ মিনিটে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মাহবুবুর রহমান তার বাসা থেকে বের হয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রবেশ করেন। একই দিন সকাল ৯:৪০ মিনিটে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভিতরে গিয়ে দেখা যায়, আউটডোর রুগীদের ভিড়। স্বাস্থ্যকর্মকর্তার কক্ষসহ বাকি সব ডাক্তারদের কক্ষগুলো ছিল খালি। এমন কি আউটডোর ফার্মেসীর দরজায়ও ছিলো তালা। ঐসময় আউটডোর ফার্মেসীর সামনে দেখা গেছে কম করে হলেও ১০জন ওষুধ কোম্পানীর বিপনন প্রতিনিধি ডাক্তারদের অপেক্ষায় রয়েছেন।

উপজেলা ফ্যামেলী প্লানিং কর্মকর্তা আতিকুর রহমান বসেন ৭নং কক্ষে। ঐ কক্ষটি কোনো দিনই খোলা পাওয়া যায়নি। সোমবার এই প্রতিবেদক ঐ বদ্ধ দরজার ছবি তুললে ষ্টাফদের কেউ তার কাছে ফোন দিলে সে কোনো এক ফাঁকে তরিগরি করে রুমে ঢুকেন। ডাক্তারদের বিরুদ্ধে রয়েছে অফিস সময়ে বাহিরে রুগী দেখতে যাওয়ার অভিযোগ।

অফিসে না এসে, আউটডোর রুগী নাদেখে সকাল ১০টার আগ পর্যন্ত বাসায় প্রাইভেট রুগী দেখা ও ওষুধ কোম্পানীর বিপনন প্রতিনিধির সাথে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার সাক্ষাতই যেনো স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তারদের প্রধান কাজ।

১৮সেপ্টেম্বর সোমবার বেলা ১২টার দিকে ডাক্তার আসিফুজ্জামানকে তার কক্ষে চেয়ারে ঘুমান্ত অবস্থায় পাওয়া দেখা যায়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মাহবুবুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি অফিস সময় ৮টা থেকে ২:৩০ পর্যন্ত স্বীকার করেন। ডাক্তার অথবা অন্যান্য কর্মকর্তা কর্মচারীদের অনিয়মের ব্যাপারে সঠিক কোনো উত্তর তিনি দিতে পারেন নি।