Pages

Categories

Search

আজ- বৃহস্পতিবার ১৫ নভেম্বর ২০১৮

নার্সদের দাবি মেনে নিয়েছে সরকার

fileগাজীপুর দর্পন ডেস্ক:
পাবলিক সার্ভিস কমিশন (পিএসসি) ঘোষিত নার্স নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি বাতিলের দাবিতে আন্দোলনকারী ডিপ্লোমা ও গ্রাজুয়েট বেকার নার্সদের দাবি মেনে নিয়েছে সরকার। ফলে এখন পরীক্ষা নয়, আগের নিয়মেই ব্যাচ, মেধা ও সিনিয়রিটি ভিত্তিতেই নার্স নিয়োগ হবে।

রোববার (পহেলা মে) সকাল ১০টায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম মিন্টোরোডের বাসায় নার্স নেতৃবৃন্দকে ডেকে এ ঘোষণা দেন।

নার্সরা টানা ২৮ দিন আন্দোলন করার পর তাদের দাবি মেনে নেওয়ার পর নার্সরা বিজয় উল্লাস করেছে প্রেসক্লাবের অবস্থান কর্মসূচির স্থলে।

দাবি আদায়ের পর বেকার নার্সেস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি রিনা আক্তার তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আমাদের এই দাবি মেনে নেওয়ায় নার্সবান্ধব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি, সেই সঙ্গে ধন্যবাদ জানাচ্ছি স্বাস্থ্যমন্ত্রীকেও।

রিনা আক্তার বলেন, এই মে দিবসে আমাদের দাবি মেনে নেওয়ায় সরকার আবারও প্রমাণ করল তারা শ্রমিকদের পাশে আছে। এ সরকার নার্সবান্ধব। এখন আর কষ্ট নেই, আমরা সবাই মিলে এই দেশটাকে এগিয়ে নিয়ে যাব।

আন্দোলনরত নার্স আসমা আক্তার তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, নার্সবান্ধব প্রধানমন্ত্রীকে অন্তরের অন্তঃস্থল থেকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আজ আমরা খুবই খুশি।

আন্দোলনরত নার্সদের একজন কামরুন্নাহার তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আমাদের প্রধানমন্ত্রী আমাদের পাশে আছেন।ভবিষ্যতেও থাকবেন। তাঁর প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। তিনি আমাদের মানবেতর জীবন যাপনের কথা শুনেই আমাদের দাবি মেনে নিয়েছেন।

কামরুন্নাহার বলেন, দেশে নার্সদের সংকট চলছে, এই সময়ে ব্যাচ মেধা জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে নিয়োগ ছিল অত্যন্ত যুক্তিযুক্ত। প্রধানমন্ত্রীকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

প্রসঙ্গত, সিনিয়র স্টাফ নার্স নিয়োগে সরকারি কর্মকমিশনের প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি বাতিল করে ব্যাচ, যোগ্যতা ও জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে নিযোগ দেয়ার জন্য ২৮ দিন ধরে প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছিল ডিপ্লোমা বেকার নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন ও বেসিক গ্রাজু্য়েট নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন।