Pages

Categories

Search

আজ- মঙ্গলবার ১৩ নভেম্বর ২০১৮

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল – মেহের আফরোজ চুমকি

Screenshot_1
গাজীপুর দর্পণ রিপোর্ট: মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বলেছেন নারী ও শিশু নির্যাতনের চাঞ্চল্যকর মামলাগুলি দ্রুত সময়ের মধ্যে বিচার প্রক্রিয়া সম্পান্ন করার জন্যে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালকে আহভান জানিয়েছেন। তিনি আজ গোপালগঞ্জের টুঙ্গীপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধাঞ্জলী প্রদানের সময়ে একথা বলেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, নারী ও শিশু নির্যাতনের চাঞ্চল্যকর মামলাগুলি প্রতি তিন মাস অন্তর অন্তর মনিটরিং করা হবে। প্রয়োজনে প্রধান বিচারপতির সহায়তায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রইব্যুনালের বিচারকদের সাথে আলোচনা করা হবে। প্রতিমন্ত্রী আজ দুপুরে তার নির্বাচনী এলাকার প্রায় ২০০ নেতাকর্মী সহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রদান এবং দোয়া ও মোনাজাত করেন। তার সাথে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল গণী ভূইয়া, উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ আমিনুল হক, উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা শহীদুল কাদের পাপ্পু, উপজেলা চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন পলাশ, গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসক খলিলুর রহমান প্রমুখ।
এসময় প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, ১৯৭১ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে বাংলাদেশ শ্বাধীন হয়। শ্বাধীনতার পরে বঙ্গবন্ধু নারী ও পুরুষের সমান অধিকার রেখে সংবিধান প্রণয়ন করেন। কিন্তু ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট একদল বিপদগামী সেনা সদস্যদের দ্বারা বঙ্গবন্ধুকে শ্বপরিবারে হত্যার কারণে আজও বাংলাদেশে নারী ও পুরুষের সমান অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়নি। আজ বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে আমরা নারী ও পুরুষের সমান অধিকার নিশ্চিতের কাজ করে যাচ্ছি। ইনশাআল্লাহ বাংলাদেশে নারী ও পুরুষের সমান অধিকার প্রতিষ্ঠিত হবে। তিনি দেশবাসিকে ১৫ আগস্ট জাতির জনকের মৃত্যুবার্ষিকীতে সকল শ্রেণী পেশার মানুষকে বঙ্গবন্ধুর আত্মার মাগফরতে দোয়া করার আহভান জানান।