Pages

Categories

Search

আজ- মঙ্গলবার ২০ নভেম্বর ২০১৮

নরসিংদীতে এস,এস,সি পরীক্ষার ফরম পূরণে দ্বিগুন ফি আদায়

নভেম্বর ১৪, ২০১৫
অনিয়ম, নরসিংদী, পরীক্ষা
No Comment

141941305320150126010331ফারুক আহম্মেদ, বেলাব(নরসিংদী) প্রতিনিধিঃ
আগামী ১ ফেব্রুয়ারী অনুষ্ঠিব্য এস,এস,সি পরীক্ষার ফরম পূরণে শিক্ষক সমিতির বে-আইনি সিদ্ধান্তের কারনে দিগুন ফি জমা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে উপজেলার ২৬ টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে। এসকল বিদ্যালয়ের মধ্যে বেশির ভাগ বিদ্যালয়ে বে-আইনি ভাবে ফরম পূরণ বাবদ নেওয়া হচ্ছে ২৭শ থেকে ২৮শ টাকা। আবার কোন কোন বিদ্যালয়ে সেশন ফি,কেন্দ্র ফি,কোচিং ফি,বকেয়া বেতনের নাম করে নেওয়া হচ্ছে ৩ থেকে সাড়ে ৩ হাজার টাকা।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়,আসন্ন এস,এস,সি পরীক্ষায় বেলাব উপজেলার ২৬ টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রায় ২৬০০ শিক্ষার্থী অংশ গ্রহন করবে। সরকারী ভাবে এস,এস,সি পরীক্ষার ফরম পূরনে বিজ্ঞানে ১হাজার ৩শত ৫০টাকা, টাকা,মানবিক ও বাণিজ্য বিভাগে ১ হাজার ৩শ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। সরকারী সিদ্ধান্তে বাইরে কোন কারন ছাড়া অতিরিক্ত টাকা নেয়া সম্পূর্ন বে-আইনি হলেও উপজেলা শিক্ষক সমিতির সদস্যরা আলাদা ভাবে মিটিং করে সিদ্ধান্ত করে দিয়েছেন ফরম পূরণে ফি নিতে হবে ২হাজার ৮শ টাকা থেকে ৩ হাজার টাকা । আর এ সুযোগে শিক্ষকরা ফরম পূরণে নিচ্ছেন দিগুন থেকে আড়াইগুন অর্থ। স্বচ্চল শিক্ষার্থীদের অভিভাকদের বিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষের সাথে সুসম্পর্ক থাকায় ফরম পূরনের ফি তাদের বেলায় কিছুটা কম হলেও দরিদ্র শিক্ষার্থীরা হচ্ছে এ ক্ষেত্রে বঞ্চিত।

এ ব্যাপারে ধুকুন্দি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামান এর সাথে কথা হলে তিনি বলেন,আমরা কোন অতিরিক্ত ফি নিচ্ছিনা।

নারায়নপুর সরাফত উল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আঃ রহমান বলেন, আমরা শিক্ষক প্রতিনিধিরা আলাদা ভাবে মিটিং করে ফরম পূরণে অতিরিক্ত ফি নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। কারন হোম ভিজিট,উন্নয়ন ফি,সেশন ফি,বকেয়া বেতন প্রভৃতি কারনে আমরা অতিরিক্ত ফি নিচ্ছি। তবে সবাই তো আর ২৮শ করে টাকা দিচ্ছেনা। অনেকেই কম টাকা দিচ্ছে।

দেওয়ানেরচর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মনির হোসেন জানান, কোচিং ফি ও সেশন ফির কারনে ফরম পূরণে আমরা ২৭শ থেকে ২৮শ টাকা নিচ্ছি।

এ ব্যাপারে উপজেলা শিক্ষক সমিতির সভাপতি মোঃ আব্দুস সালাম ফরম ফিলাপে অতিরিক্ত ফি আদায়ের কথা স্বীকার করে বলেন, উপজেলার বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের নিয়ে আমরা মিটিং করে সেশন চার্জ ৫শ টাকা ও ৩ মাসের বকেয়া বেতন ৩শ টাকা ধরে ফি আদায়ের কথা বলেছি।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ ওমর ফারুক ভূইয়া বলেন,সরকারী ভাবে নির্ধারিত ফি ১৩শ টাকা থেকে ১৩৫০ টাকার বাইরে কারন ছাড়া কোন টাকা নেওয়া বে-আইনী। যারা এরকম করছেন তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।