Pages

Categories

Search

আজ- মঙ্গলবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

নওগাঁ-৩ আসনে চলছে মনোনয়নের লবিং গ্রুপিং

নভেম্বর ১১, ২০১৭
নওগাঁ, নির্বাচন, রাজনীতি
No Comment

জি এম মিঠন, উত্তরাঞ্চল প্রতিনিধি: নওগাঁ জেলার মহাদেবপুর ও বদলগাছী উপজেলা নিয়ে জাতীয় সংসদ-৪৮ নওগাঁ-৩ আসন গঠিত। এই আসনটি বিএনপি’র ঘাঁটি হিসেবেই পূর্ব থেকেই পরিচিত ছিল। তবে বিগত পরপর দুটি নির্বাচনে বর্তমানে আওয়ামীলীগের দখলে রয়েছে আসনটি। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেতে বর্তমান সাংসদ আলহাজ্ব মোঃ ছলিম উদ্দিন তরফদার সেলিম এবং সাবেক সাংসদ ও বর্তমান বরেন্দ্র বহুমূখী উন্নয়ন কতৃপক্ষ এর চেয়ারম্যান ড. আকরাম হোসেন চৌধুরী গণসংযোগ, সভা সমাবেশ, পোস্টার, ব্যানার, ফেস্টুন, ও মতবিনিময় সভা করছেন।

গত নির্বাচনে আওয়ামীলীগ সমর্থীত প্রার্থী ড. আকরাম হোসেন চৌধুরীকে পরাজিত করে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী হিসেবে জয় লাভ করেন, আলহাজ্ব মোঃ ছলিম উদ্দিন তরফদার সেলিম।

নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ড. আকরাম হোসেন চৌধুরী মহাদেবপুর-বদলগাছীর জনগণের রায়ে ভোটে নির্বাচিত হয়ে এলাকার সার্বিক উন্নয়ন করেছিলেন।

তবে বর্তমান সাংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ ছলিম উদ্দিন তরফদার সেলিম বিগত নির্বাচনে যেভাবে সাধারন লোকজনের সাথে থেকে মিলেমিশে ভোটারদের ভালবাসা অর্জন করে নির্বাচিত হয়েছিলেন ঠিক তেমনিভাবে নির্বাচিত হওয়ার পরও তিনি পূর্বের ন্যায় সাধারন লোকজনের সাথে মিলেমিশে ও সাথে নিয়েই এলাকার সার্বিক উন্নয়ন করে যাচ্ছেন। এছাড়াও নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই সাংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ ছলিম উদ্দিন তরফদার সেলিম বেশিরভাগ সময় তার নির্বাচনি এলাকায় কখনো পায়ে হেটে বা মোটর সাইকেল চালিয়ে প্রায় প্রতি নিয়তই বিভিন্ন এলাকা ঘুড়েঘুড়ে সাধারন লোকজনের সাথে আলাপ-চারিতা ও কুশল বিনিময়ের মাধ্যমে বিভিন্ন সমস্যার সমাধান ও এলাকার উন্নয়ন করায় সে বর্তমানে এলাকার সাধারন লোকজনের কাছে একজন জনপ্রিয় এমপি হিসেবেই পরিচিতি লাভ করেছেন এমনটাই জানিয়েছেন এলাকার সাধারন লোকজন।

তবে আওয়ামীলীগের এই দুই প্রভাবশালী নেতার মধ্যে কে পাবেন দলীয় মনোনয়ন সেটা সময়েই বলে দিবে এমনটাও বলাবলি করছেন সাধারন লোকজন ও মাঠ পর্যায়ের আওয়ামীলীগ নেতারা।

আওয়ামীলীগ ও বিএনপি’র মনোনয়ন প্রত্যাশীরা দলীয় নেতা-কর্মীদের সমর্থন পাবার বিষয়টির প্রতি গুরুত্ব দিচ্ছেন বেশী। স্থানীয় পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের মতামতের ভিত্তিতে যদি মনোনয়ন দেওয়া হয় সে,ক্ষেত্রে বেশীর ভাগ নেতা-কর্মীর সমর্থন পাওয়াটা জরুরী হয়ে পরতে পারে। তাই নেতা-কর্মীদের সমর্থন লাভে জোর তৎপরতা পরিলক্ষিত হচ্ছে বড় দু’টি রাজনৈতিক দল আওয়ামীলীগ ও বিএনপি’র দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে।

বিএনপি থেকে সাবেক ডেপুটি স্পিকার আখতার হামিদ সিদ্দিকী নান্নু, নব্বই-এর স্বৈরাচার বিরোধী ছাত্র-গণআন্দোলনের নির্ভীক যোদ্ধা আলহাজ্ব রবিউল আলম বুলেট, বদলগাছী উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি ফজলে হুদা বাবুল, এবং নব্বইয়ের ছাত্র আন্দোলনের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতা আসফ করিব চৌধুরী শত। মনোনয়ন পেতে ইতি মধ্যেই গণসংযোগ, সভা সমাবেশ, পোস্টার,ব্যানার, ফেস্টুন, ও মতবিনিময় সভা করছেন বিএনপি’র দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীরাও ।

এছাড়া এই আসনে জাতীয় পার্টি থেকে সরাসরি নির্বাচনে অংশ গ্রহনের কথা শোনা যাচ্ছে। দলীয় ভাবে কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডঃ তোফাজ্জল হোসেনের নাম প্রচার করা হচ্ছে এলাকার ভোটারদের মাঝে। জাসদ (ইনু) এর পক্ষ থেকে এই আসনে বদলগাছীর বীর মুক্তিযোদ্ধা নওগাঁ জেলা জাসদ (ইনু) এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ওয়াজেদ আলী নির্বাচনের প্রস্তুতি গ্রহণ করছেন বলেও সুত্রে জানা গেছে। তবে জাতীয় পার্টি ও জাসদ এর গণসংসংযোগ ও প্রচার প্রচারণা এখন পর্যন্ত তেমন লক্ষ্য করা না গেলেও আওয়ামীলীগ ও বিএনপি’র মনোনয়ন প্রত্যাশীরাই প্রচার-প্রচারনা ও সভা-সমাবেশ সহ গনসংযোগ চালিয়ে নির্বাচনী মাঠ সরব করে রেখেছেন। মনোনয়ন প্রত্যাশীদের আনাগোনায় জনসাধারনরা বুঝতে পারতেছেন যে, আগামীতে আবার ও জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে। তারা ভোট দিবেন তাদের পছন্দ মতো প্রার্থীকে।
তবে আগামী নির্বাচনে এ আসনেও নৌকা আর ধানের শীষ প্রতিকের মধ্যে ভোট যুদ্ধ হবে এমনটাই বলাবলি করছেন সাধারন ভোটাররা।

বিএনপি থেকে যদি সাবেক ডেপুটি স্পিকার আখতার হামিদ সিদ্দিকী নান্নু ও আওয়ামীলীগ থেকে বর্তমান সংসদ আলহাজ্ব মোঃ ছলিম উদ্দিন তরফদার সেলিম কে মনোনয়ন দেয় তাহলে এ আসনে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে দুই প্রার্থীর মাঝে এবং অল্প ভোটের ব্যবধানেই জয়-পরাজয় হবে বলেও এলাকার বিভিন্ন হাট-বাজারের বিশেষ করে চায়ের আড্ডায় এনি আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়ে গেছে ইতি মধ্যেই।