Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ১৪ নভেম্বর ২০১৮

নওগাঁ পলিটেকনিকের মেধাবী ছাত্র শ্যামলের হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন


জি,এম মিঠন, উত্তরাঞ্চল প্রতিনিধি: নওগাঁ পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের কম্পিউটার বিভাগের মেধাবী ছাত্র শ্যামল চন্দ্রের (২০) হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকালে শহরের মুক্তির মোড় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনের কর্মসূচি পালন করা হয়।
নওগাঁ পলিেেটকনিক ইন্সটিটিউটের সাধারন ছাত্রদের উদ্যেগে কলেজ থেকে একটি মিছিল বের করে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে মুক্তির মোড়ে গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
এতে বক্তব্য রাখেন তারিকুল ইসলাম, তানভির ইসলাম, শাকিল আহমেদ, বিশাল সরদার ও শিউল আহমেদ প্রমুখ। বক্তারা বলেন, আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে শ্যামল হত্যাকারীরাসহ এজাহারভুক্ত আসামীরা গ্রেফতার না হলে বৃহত্তর কর্মসুচী ঘোষনা করা হবে। বক্তরা দাবি করেন, আসামীরা এখনও মোবাইল ফোনে হুমকী দিচ্ছে মামলা তুলে নেয়ার এবং আন্দোলন না করার জন্য। পুলিশ প্রশাসনকে বিষয়টি জানিয়েও কোন লাভ হচ্ছে না।
উল্লেখ্য, পূর্বেও শত্র“তার জের ধরে শুক্রবার রাত ৮টায় পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট এলাকায় আরজি নওগাঁ ফিশারি গেটের সামনে ছুরিকাহত শ্যামল চন্দ্র আহত হন। পরদিন শনিবার মারা যান তিনি। এ ঘটনায় ওই দিন রাতে শ্যামলের বাবা গোপাল চন্দ্র বর্মণ নওগাঁ সদর থানায় নয়জনের নাম উলে­খ ও অজ্ঞাত আরও ছয়-সাতজনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন।
খুনের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে শনিবার দুপূরে পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ৭ম সেমিস্টারের ছাত্র আতোয়ার হোসেন (২০) ও মোহাম্মদ রনি (২০) ও চতুর্থ সেমিস্টারের ছাত্র ফয়সাল হোসেনকে (১৮) গ্রেফতার করে পুলিশ। তবে নতুন করে অন্য আসামীদের গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।
রবিবার দুপুরে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ময়না তদন্ত শেষে শ্যামলের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। গতকাল বিকেলে গ্রামের বাড়ি পত্মীতলা উপজেলার মাটিন্দর ইউনিয়নের বাঁশখোলা গ্রামে তাঁর সৎকার করা হয় বলে পারিবারিক সূত্রে জানা যায়।
নওগাঁ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) সামছুল আলম জানান, মামলার এজাহার ও তাঁর বন্ধুদের দেওয়া তথ্যের সূত্র ধরে তিনজনকে ইতোমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে। পূর্ব শত্র“তার জের ধরে এ হত্যাকান্ড সংঘটিত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। মামলার বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলেও প্রতিবেদককে জানিয়েছেন তিনি।