Pages

Categories

Search

আজ- শুক্রবার ১৬ নভেম্বর ২০১৮

নওগাঁয় ৭শতাধিক পূজা মন্ডপে দূর্গোৎসবের প্রস্তুতি

সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৭
উৎসব, ধর্ম, নওগাঁ
No Comment

আব্দুর রউফ রিপন, নওগাঁ প্রতিনিধি : নওগাঁয় সম্প্রতি স্মরণ কালের বন্যার পানি মাঠ-ঘাঠ থেকে শুকানোর আগেই ৭শ’ ২৬টি পূজা মন্ডপে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দুর্গা পূজা অনুষ্ঠানের জোর প্রস্তুতি চলছে। পূজা মন্ডপগুলোতে কে কত সুন্দর ভাবে প্রতিমা তৈরি করতে পারে তার জন্য ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা শিল্পিরা। ইতিমধ্যে কিছু কিছু পূজা মন্দিরে প্রতিমার অবকাঠামোগত মাটির কাজ শেষ পর্যায়ে। তবে এই প্রতিমাগুলোতে রং এর কাজ করা হবে পূজার কিছুদিন পূর্বে।

সূত্রে জানা, নওগাঁয় ১১উপজেলা ও ৩টি পৌরসভায় অনুষ্ঠিত হবে এ উৎসব। ১১ উপজেলার মধ্যে মহাদেবপুরে সবচেয়ে বেশি এরপর রয়েছে মান্দা ও রাণীনগর উপজেলায় সব থেকে বেশি পূজা মন্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ১৯ সেপ্টেম্বর শুভ মহালয়া অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে দূর্গা পূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে। এ বছর দেবী দূর্গা নৌকায় আগমন এবং ঘোড়ায় চড়ে গমন করবেন বলে জানা গেছে। পরবর্তীতে আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে দূর্গোৎসবের মূল আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে। ২৯ সেপ্টেম্বর বিজয়া দশমীর মধ্য দিয়ে শেষ হবে ৫ দিনব্যাপী এ উৎসব শেষ হবে। এবছর জেলার বেশ কয়েকটি মন্দিরে শতাধিক প্রতিমার মন্ডপ তৈরী করছেন পুজা আয়োজকরা। এদের মধ্যে জেলা সদরের আলুপট্টি, কালীতলা, পুরাতন ডিসি অফিস, মান্দার মৈনব, দেলুয়াবাড়ী, রাণীনগর উপজেলার হাটখলা অন্যতম। অন্য বছরের তুলনায় এ বছর পূজামন্ডপগুলোকে একটু বিশেষ ভাবে সাজানো হচ্ছে।

প্রতিমা কারিগর শ্রী সিবেন, শ্রী হরে কৃষ্ণসহ আরো অনেকে জানান, সম্প্রতি নওগাঁয় ভয়াবহ বন্যার কারণে প্রতিমা তৈরির কারিগররা একটু লোকসানের মুখে পড়েছেন। তবু ব্যবসা ধরে রাখতে তারা অল্প লাভেই তৈরি করছেন প্রতিমা। বন্যার কারণে লোকজনের হাতে অর্থ কম থাকায় তারা অনেকটাই খরচ কমিয়ে দিয়েছে। তবুও আমরা মাকে স্মরন করার জন্য কষ্ট হলেও তৈরি করছি প্রতিমা।

নওগাঁ জেলা পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক বিভাস মজুমদার গোপাল, আমরা প্রতি বছরের ন্যায় এবারো আমাদের পক্ষ থেকে ও প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতায় সুষ্ঠ ভাবে জেলায় পূজা উদযাপিত হবে। আর কদিন পরেই মাকে সাজানোর কাজ শুরু করা হবে। তবে কোন কোন মন্ডবে মাটির কাজ শেষের দিকে। আর অল্প কিছু দিনের মধ্যেই শুরু হবে পুরো দমে। প্রতিটি মন্ডবে আমাদের পক্ষ থেকে ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেওয়া হবে কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা।

নওগাঁ পুলিশ সুপার মো: ইকবাল হোসেন, দূর্গোৎসবে জেলা আইশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ও নিরাপত্তার ক্ষেত্রে আমরা ৩স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। পুলিশের পাশাপাশি আনসার-ভিডিপির সদস্যরাও দায়িত্ব পালন করবেন। প্রতিটি পূজা মন্ডবকে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হবে। নওগাঁর সকল ধর্মের মানুষ সমানভাবে আনন্দ ভোগ করতে পারে সে জন্য আমরা প্রস্তুত রয়েছি।

নওগাঁ জেলা প্রশাসক ড. মো: আমিনুর রহমান জানান, সুষ্ঠ ভাবে এই উৎসব অনুষ্ঠিত হওয়ার জন্য আমরা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকল প্রকারের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। প্রতিটি পূজা মন্ডবে নিরবিচ্ছিন্ন নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটলে তা কঠোর হাতে দমন করা হবে।