Pages

Categories

Search

আজ- বৃহস্পতিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

নওগাঁয় প্রবীণ দুই মাকে আগলে রেখেছে স্বামী-স্ত্রী

মে ১৫, ২০১৬
নওগাঁ, বিশেষ প্রতিবেদন
No Comment

Akkas-p-15.5.16মো. আককাস আলী, মহাদেবপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি:
দুই প্রবীণের আশ্রয় স্থল আবু বক্কর সিদ্দিকের কুঠির। দীর্ঘ দিন থেকে এই কুঠিরে দুই প্রবীণের বসবাস। দুই প্রবীণকে যেন আগলে রেখেছে আবু বক্কর সিদ্দিক ও তার স্ত্রী আঞ্জুমান আরা।

আঞ্জুমান আরা একজন সমাজ সেবী এবং ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত আসনের সদস্য। আবু বক্কর সিদ্দিকও এলাকার সাধারণ মানুষের সেবাই নিয়োজিত। মায়ের সেবার পাশাপাশি তিনি সাধারণ মানুষের সেবা করেই দিন অতিবাহিত করেন।

এলাকার মানুষ কোন সমস্যায় পড়লে ছুটে আসে এই সমাজ সেবীর নিকটে। সমাজ সেবী হিসাবে খ্যাত আবু বক্কর সিদ্দীক নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার চান্দাস ইউনিয়নের আখিড়া পাড়ার মৃত জামান উদ্দীন মন্ডলের ছেলে।

আবু বক্কর তার মা বিবিজান (৮৫) ও শাশুড়ী নেশারীকে (৮০) এতটুকু ¯েœহ-ভালবাসা থেকে বঞ্চিত করেননি। তার স্ত্রী আঞ্জুমান আরাও এই দুই প্রবীণের সেবাই বলিয়ান। এই প্রতিদানে তাদের সংসার যেন সুখের ভু-স্বর্গ। এই দুই প্রবীণের অন্য ছেলে-মেয়েরা তাদের খোজঁ খবর না নিলেও বক্কর ও আঞ্জুমান আরার সেবাই বৃদ্ধারা বেশ সুখেই দিন অতিবাহিত করছেন।

এব্যাপারে খ্যাতমান সমাজ সেবী আবু বক্কর জানান, আমার মা ও শাশুড়ীকে কোন ছেলে মেয়েরা না দেখলেও আমি ও আমার স্ত্রী তাদেরকে দেখছি এবং তাদেরকে সেবা যত্ন করতে পারছি এটাই আমাদের বড় পাওয়া।

প্রবীণদের নিয়ে গবেষক, জাতীয় কবিতা পরিষদের সভাপতি কবি মো. আককাস আলী ওই দুই প্রবীণের সাথে আলাপ চারিতায় ভেষে উঠে তাদের মনের ভিতরের অনেক যন্ত্রনার কথা।

দুই প্রবীণ বিবিজান ও নেশারী বলেন, বহু কষ্টে ছেলে-মেয়েদের বড় করেছি এখন তারা নিজের সংসার নিয়ে নিজেরাই ব্যস্ত। আবু বক্কর ও আঞ্জুমানের কথা শুনার আগেই বৃদ্ধারা বলে উঠলেন এই দুই নয়ন মনিরা না থাকলে আমাদেরকে কষ্টের মধ্যে থাকতে হত।

দুই প্রবীণ মা আরও বললেন, আমাদের মলমূত্র থেকে শুরু করে সব কিছ্ইু তারা পরিস্কার করে। কখনও আমাদেরকে এতটুকু কষ্ট দেয়নি

এমএইএস/আককাস আলী