Pages

Categories

Search

আজ- সোমবার ১২ নভেম্বর ২০১৮

নওগাঁর কৃতি সন্তান কবিতা খানম দেশের প্রথম নারী নির্বাচন কমিশনার

ফেব্রুয়ারি ৯, ২০১৭
নওগাঁ, নারী অঙ্গন
No Comment

naogaon.pic-1
জি,এম মিঠন উত্তরাঞ্চল প্রতিনিধি: নওগাঁ জেলার ধামইরহাট উপজেলার কৃতি সন্তান কবিতা খানম সদ্য ঘোষিত নির্বাচন কমিশনের বাংলাদেশে প্রথম নারী কমিশনার হিসেবে মনোনীত হয়েছে। এলাকার লোকজনের মাঝে উচ্চ শিক্ষিত পরিবার হিসেবে তাদের ব্যাপক খ্যাতি রয়েছে। তার বাবাও উচ্চ শিক্ষিত ও দির্ঘদিন ধরে শিক্ষকতা করেছেন। কবিতা খানম দীর্ঘদিন নওগাঁ শহরের উকিলপাড়া মহল­ায় বসবাস করেছেন।
জানা গেছে, ১৯৫৭ সালের ৩০ জুন এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন কবিতা খানম। তার বাবা মরহুম বজলুল হক (এলাকার লোকজনের মাঝে বি হক নামে পরিচিত) ও মা গোলে রাণী। বজলুল হক ধামইরহাট উপজেলার খড়মপুর গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি নওগাঁর বিএমসি (বর্তমানে সরকারী মহিলা কলেজ) কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে দির্ঘদিন দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৭ সালে তিনি ইন্তেকাল করেন।
কবিতা খানমের নানা বাড়ী ধামুরহাট উপজেলার চককালু গ্রামে। তার নানার নাম মরহুম গিয়াস উদ্দিন সরকার। হাতে খড়ি থেকে শুরু করে জীবনের প্রথম সার্টিফিকেট পরীক্ষা এসএসসিতে প্রথম স্থান অধিকার করেছেন। পরবর্তীতে উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের জন্য তিনি দেশের বিভিন্নস্থানে পড়াশুনা করেছেন। ছোট থেকে গান ও সাহিত্যে তার বেশ ঝোক ছিল। কবিতা খানম চার ভাই ও চার বোনের মধ্যে তৃতীয় সন্তান। প্রথম ভাই বখতিয়ার মোমতাহিদ সোবহানী প্রকৌশলী হিসেবে আমেরিকা প্রবাসী। দ্বিতীয় ফরিদা বেগম নওগাঁ সরকারী ডিগ্রী কলেজ থেকে অধ্যক্ষ হিসেবে অবসর নিয়েছেন। তৃতীয় ভাই হেলাল মোস্তাহিদ সোবহানী রাজশাহীতে ব্যবসার সঙ্গে জড়িত হয়ে সেখানে বসবাস করছেন। চতুর্থ কোরাতুল আইন রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের সিনিয়র কর্মকর্তা হিসেবে অবসর নিয়েছেন। পঞ্চম সিহাব মোতাব্বির সোবহানী আরব আমিরাতে কর্মরত। ষষ্ঠ ফৌজিয়া খানম গাইনি চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত আছেন।
সপ্তম কবিতা খানম ২০১৫ সালের জুন মাসে রাজশাহী জেলা ও দায়রা জজ হিসেবে অবসর গ্রহণ করেন। অষ্টম তারিক মোস্তাহিদ সোবহানী বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে মেজর হিসেবে কর্মরত আছেন। কবিতা খানম ১৯৭২ সালে নওগাঁ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি, ১৯৭৪ সালে নওগাঁ বিএমসি কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেন। ১৯৮১ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রাণিবিদ্যা বিষয়ে অনার্স ও মাষ্টার্স ডিগ্রী অর্জন করেন। পরে ১৯৮৩ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় হতে এলএলবি ডিগ্রী অর্জন করেন। ১৯৮৪ সালে বিসিএস বিশেষ ব্যাচে উত্তীর্ণ হয়ে রাজশাহীর জেলা জজ আদালতে মুনসেফ হিসেবে কর্ম জীবন শুরু করেন। কর্ম জীবনে তিনি বগুড়া, টাঙ্গাইল, কুষ্টিয়া, ঝিনাইদহ, পাবনা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, চুয়াডাঙ্গা, খুলনা জজ আদালতের বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে রাজশাহী জেলা ও দায়রা জজ হিসেবে ২০১৬ সালের ৩০ জুন অবসর গ্রহণ করেন।
কবিতা খানমের স্বামী মশিউর রহমান চৌধুরীও জেলা ও দায়রা জজ হিসেবে দায়িত্ব পালনরত অবস্থায় ২০১১ সালে মৃত্যু বরণ করেন। বৈবাহিক সূত্রে কবিতা খানম ১ ছেলে ও ১ মেয়ে সন্তানের জননী। ছেলে চৌধুরী আবিদ রহমান বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লেখাপড়া শেষে বর্তমানে সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন হিসেবে কর্মরত আছেন। মেয়ে ডা. মুমতাহিনাহ ঢাকার একটি বে-সরকারী মেডিকেল কলেজে লেকচারার হিসেবে কর্মরত। কবিতা খানমের পুরো পরিবারই উচ্চ শিক্ষিত ৫০ থেকে ৭০ দশক পর্যন্ত এলাকার নওগাঁর জেলার অধিকাংশ শিক্ষিত লোকজনের শিক্ষক ছিলেন তার বাবা মরহুম বজলুল হক। এদিকে ধামইরহাট উপজেলা খড়মপুর গ্রামের মেয়ে কবিতা খানম বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের প্রথম নির্বাচন কমিশনার হিসেবে মনোনিত হওয়ার এলাকাবাসীর মাঝে ব্যাপক উৎসাহ, আনন্দ ও উদ্দিপনা বিরাজ করছে।
উলে­খ্য বর্তমান নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অবঃ) জাবেদ আলীর বাড়ীও নওগাঁয়।