Pages

Categories

Search

আজ- মঙ্গলবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

দেশ ও জাতির স্বার্থে প্রতিরক্ষা চুক্তির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করুন —মুসলিম লীগ মহাসচিব

এপ্রিল ৫, ২০১৭
জাতীয়, প্রকৃতি, প্রেস বিজ্ঞপ্তী
No Comment

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : মহান মুক্তিযুদ্ধের পর লাল সবুজের স্বাধীন সার্বভৌম একটি রাষ্ট্রের জন্ম হলেও মুক্তিযুদ্ধের কাঙ্খিত লক্ষ্য এখনো অর্জিত হয়নি। ক্ষুধা দরিদ্রতামুক্ত গণতন্ত্রের জন্য আজও লড়াই করে যাচ্ছে এদেশের গণমানুষ। এমতাবস্থায় সা¤্রাজ্যবাদী ও আধিপত্যবাদীরা স্বাধীন সার্বভৌম এদেশের মাটিতে উপনিবেশবাদ কায়েমের ঘৃণ্য চক্রান্তে লিপ্ত হয়েছে। রক্ত দিয়ে কেনা স¦াধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের স্বাধীনতাপ্রেমী গণমানুষ কোন ভাবেই এদেশকে ভীনদেশীদের তাবেদার রাষ্ট্রে পরিনত হতে দেবে না। পরিবেশ পরিস্থিতির উপর ভিত্তি করে দুটি বন্ধু রাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা চুক্তি বিশ্বে একটি স্বাভাবিক ঘটনা তবে এ রকম একটি স্পর্শকাতর চুক্তির প্রশ্নে জনগনের মতামত অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন। মহান স্বাধীনতা অর্জনে ভারতের ভূমিকার জন্য বাংলাদেশী গোটা জাতি কৃতজ্ঞ। কিন্তু পরবর্তীতে সীমান্তে নিয়মিত বাংলাদেশী নাগরিক হত্যা, বাঁধ নির্মানের মাধ্যমে পানি প্রত্যাহার, তিস্তা চুক্তির অনিশ্চিত ভবিষ্যত, বৈদেশিক বানিজ্যে অসমতা, সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়ার মত বিভিন্ন কর্মকাÐের মাধ্যমে ভারত বন্ধু রাষ্ট্রের অবস্থানকে অনেক আগেই নড়বড়ে করে ফেলেছে। এরকম সময়ে প্রতিরক্ষা চুক্তি সম্পাদনের জন্য ভারতের অতিমাত্রায় আগ্রহী হয়ে ওঠাকে জনগন ইতিবাচক ভাবে দেখছে না। বিভিন্ন গণমাধ্যম পরিচালিত জরিপ ও বিশিষ্ঠ জনদের মন্তব্য তা স্পষ্ট করেছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতিয় স্বাথের্, জনগনের মতামতকে প্রধান্য দিয়ে এ ধরনের অসম প্রতিরক্ষা চুক্তির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করবে বলে দেশের জনগন বিশ্বাস করে। গতকাল বাংলাদেশ ছাত্র মুসলিম লীগ আয়োজিত “স্বাধীনতা আমাদের অহংকার” শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ মুসলিম লীগের মহাসচিব কাজী আবুল খায়ের উপরোক্ত মন্তব্য করেন। তিনি আরো বলেন, প্রতিরক্ষা চুক্তির প্রস্তাব দেয়ার আগে সীমান্তে হত্যা বন্ধ, পানির হিস্যা প্রদান, তিস্তা চুক্তি সম্পন্ন প্রভৃতি কর্মকাÐের মাধ্যমে ভারতকে আগে প্রমাণ করতে হবে যে তারা সত্যিকার অর্থেই আমাদের বন্ধু রাষ্ট্র । তিনি দেশের স্বাধীনতা স্বার্বভৌমত্বের প্রশ্নে ছাত্র সমাজকে ইষ্পাত কঠিন ঐক্য গড়ে তোলার আহবান জানান।

বাংলাদেশ ছাত্র মুসলিম লীগের সদস্য সচিব মোহাম্মদ নুর আলম বলেন ছাত্র সমাজ বিশ্বাস করে বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অবশ্যই এমন কোন চুক্তি করবেন না যা দেশের গণ মানুষের আশা আকাঙ্খার পরিপন্থি। নয়া পল্টনস্থ সংগঠনের প্রধান কার্যালয়ে বাংলাদেশ ছাত্র মুসলিম লীগের আহবায়ক এস.এইচ. খান আসাদ এর সভাপতিতে¦ অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্র মুসলিম লীগের যুগ্ম আহবায়ক মোঃ শফিকুল ইসলাম, মোঃ সাইফুল ইসলাম, অর্থ সম্পাদক কাউসার আহম্মেদ, জাগপা ছাত্রলীগ সভাপতি মোঃ সাইফুল আলম, ইসলামী ছাত্র সমাজ সভাপতি মোঃ ইলিয়াস আতাহারী, ছাত্র মিশন সভাপতি কামরুল ইসলাম সুরুজ, যুব জমিয়ত সাধারন সম্পাদক তোফায়েল গাজালি, ঢাকা মহানগর ছাত্র জমিয়ত সাধারন সম্পাদক খায়রুল ইসলাম, গবেষনা প্রতিষ্ঠান বি পি আর সির সিনিয়র সহ সভাপতি ইয়াসির রহমান প্রমুখ ।