Pages

Categories

Search

আজ- শনিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৮

দেশব্যাপী জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজসমূহের মানববন্ধন

NU Image- (1)নিজস্ব প্রতিবেদক:
গুলশানের হলি আর্টিসান বেকারিতে হামলার এক মাসপূর্তিতে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের ঘোষণা অনুযায়ী ‘সন্ত্রাস নয় শান্তি চাই, শঙ্কামুক্ত জীবন চাই’ এই স্লোগানকে ধারণ করে দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ক্যাম্পাস ও পার্শ্ববর্তী সড়কে জঙ্গি বিরোধী মানবন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার বেলা ১১টা থেকে সারা দেশে মানববন্ধন শুরু হয়ে ১২টায় শেষ হয়। জঙ্গিবাদ রুখে দেওয়ার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ক্যাম্পাস ও পার্শ্ববর্তী সড়কে এ কর্মসূচি পালিত হয়।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এবং ইডেন মহিলা কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, শেখ বোরহান উদ্দিন কলেজ ও তেজগাঁও কলেজ যৌথভাবে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে জমায়েত হয়ে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন।

মানবন্ধনে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, ইউজিসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. নোমান উর রশীদ ও সংশ্লিষ্ট কলেজের অধ্যক্ষবৃন্দসহ বিপুল সংখ্যক শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কর্মকর্তা-কর্মচারি এই জঙ্গি বিরোধী আন্দোলনে যোগদেন।

মানববন্ধন চলাকালে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, “বাংলাদেশের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা আজ মাঠে নেমেছে, তাই জঙ্গিবাদের আর এদেশে ঠাঁই হবে না।”

ইউজিসি’র চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান বলেন, “বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে যাতে কোনো সন্ত্রাসী-জঙ্গিবাদী সৃষ্টি না হতে পারে সে জন্য মঞ্জুরী কমিশনের উদ্যোগে স্থায়ী মনিটর মোতায়েনের ব্যবস্থা করা হবে।”

NU Image- (2)জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ দেশব্যাপী শিক্ষা পরিবারের সদস্যদের মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করায় ধন্যবাদ জানিয়ে সমাপনি বক্তব্যে বলেন, “আমরা অশুভ-সন্ত্রাসী শক্তির বিরুদ্ধে শুভ শক্তির উদ্বোধন ঘটাতে আজ দেশব্যাপী লক্ষ লক্ষ শিক্ষক-শিক্ষার্থী শান্তিপূর্ণ মানববন্ধন পালন করেছি। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ৩০ লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে সসস্ত্র মুক্তি যুদ্ধের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত শান্তি ও সম্প্রীতির বাংলাদেশে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের কোনো ঠাই নেই।”

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের গাজীপুর ক্যাম্পাস সংলগ্ন প্রধান সড়কে শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারিদের একাংশ প্রো-উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাফিজ মুহম্মদ হাসান বাবু’র নেতৃত্বে একই সময় মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন। এতে অন্যান্যের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মোল্লা মাহফুজ আল-হোসেন উপস্থিত ছিলেন।