Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

দুবাই টেস্টে ১০ উইকেটের সহজ জয় পাকিস্তানের

জানুয়ারি, ১৯, ২০১২
খেলাধুলা, শীর্ষ সংবাদ
No Comment

দুবাই, ১৯ জানুয়ারি: ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে ১০ উইকেটের জয় পেয়েছে পাকিস্তান।

 

আগের দিনের ২৮৮ রানে ব্যাট করতে নামা পাকিস্তান শেষ পর্যন্ত ৩৩৮ রানে প্রথম ইনিংস শেষ করার পর উমর গুল এবং সাইদ আজমলের আঘাতে ছিন্নভিন্ন হয়ে যায় ইংল্যান্ড। আঘাত করেছেন আব্দুর রেহমানও। ফলে ১৬০ রানেই গুটিয়ে যায় ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংস। ইংলিশরা কোনোরকমে ইনিংস পরাজয় এড়ালেও পাকিস্তানের দশ উইকেটের  জয়ে কোনো সমস্যা হয়নি।

 

আগের দিনের অপরাজিত পাকিস্তানী ব্যাটসম্যান আদনান আকমল খেলেন ৬১ রানের ইনিংস। অন্য ব্যাটসম্যানরা তেমন একটা সহায়তা করতে না পারায় ৩৩৮ রানেই থেমে যায় পাকিস্তানের প্রথম ইনিংস।

 

এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামা ইংল্যান্ডের ওপর তোপ দাগেন ওমর গুল। একাই টপ অর্ডার গুড়িয়ে দেন তিনি। অ্যান্ড্রু স্ট্রাউসকে ৬ রানে, অ্যালিস্টার কুককে ৫ রানে এবং জোনাথন ট্রটকে ৪৯ রানে আদনান আকমলের হাতে ক্যাচ দিতে বাধ্য করেন গুল।

 

এরপর পিটারসেনকে শূন্য হাতেই প্যাভিলিয়নের পথ দেখান এই পাকিস্তানী পেসার। এরপর শুরু হয় সাঈদ আজমল এবং আব্দুর রেহমানের যাদু। ইয়ান বেল এবং ম্যাট প্রায়রকে  লেগ বিফের উইকেট করে ফেরান আজমল।

 

কিছুটা সময়ের জন্য প্রতিরোধ গড়া টেল এন্ডার গ্রায়েম সোয়ানকেও ফিরিয়েছেন আজমল। আব্দুর রেহমান ফিরিয়েছেন ইয়ন মরগ্যান এবং ক্রিস ট্রেমলেটকে। বলার মত রান শুধুমাত্র জোনাথন ট্রট এবং গ্রায়েম সোয়ানের। তারা করেছেন যথাক্রমে ৪৯ ও ৩৯ রান। এর বাইরে আর কোনো ব্যাটসম্যানই ২০ রানের কোটা পেরোতে সক্ষম হননি।

 

ছয়জন ব্যাটসম্যান ব্যর্থ হয়েছেন দুই অংকের কোটায় পৌঁছতে। ফলে ১৬০ রানের বেশি এগোয়নি ইংলিশদের দ্বিতীয় ইনিংস।

 

জয়ের জন্য পাকিস্তানের টার্গেট ছিল মাত্র ১৪ রান। দুই ওপেনার  মোহাম্মদ হাফিজ ও তৌফিক ওমর ধীরেসুস্থে মাত্র ৩.৪ ওভার খরচ করেই আনুষ্ঠানিকতাটুকু সারেন। টেস্ট র‌্যাংকিংয়ের এক নম্বর দল ইংল্যান্ডকে দশ উইকেটে পরাজয়ের লজ্জায় ডোবায় মিসবাহ উল হকের পাকিস্তান।

 

সংক্ষিপ্ত স্কোর

টস: ইংল্যান্ড

ইংল্যান্ড প্রথম ইনিংস: ১৯২/১০ (৭২.৩ ওভার) (মরগান ২৪, প্রায়র ৭০, সোয়ান ৩৪; সাঈদ আজমল ৭/৫৫)।

পাকিস্তান প্রথম ইনিংস: ৩৩৮/১০ (১১৯.৫ ওভার) (মোহাম্মদ হাফিজ ৮৮, তৌফিক ওমর ৫৮, ইউনিস খান ৩৭, মিসবাহ ৫২, আদনান আকমল ৬১; সোয়ান ৪/১০৭, ব্রড ৩/৮৪, অ্যান্ডারসন ২/৭১)।

ইংল্যান্ড দ্বিতীয় ইনিংস: ১৬০/১০ (৫৭.৫ ওভার) (ট্রট ৪৯, সোয়ান ৩৯, অ্যান্ডারসন ১৫ অপ:; উমর গুল ৪/৬৩, সাঈদ আজমল ৩/৪২, আবদুর রেহমান ৩/৩৭)।

পাকিস্তান দ্বিতীয় ইনিংস: ১৫/০ (৩.৪ ওভার) (হাফিজ ১৫, তৌফিক ওমর ০)।

ফল: পাকিস্তান ১০ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: সাঈদ আজমল (পাকিস্তান)