Pages

Categories

Search

আজ- বৃহস্পতিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

তাড়াশে মাদ্রাসার সুপারের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ

এ এম জাহিদ হাসান, চলনবিল ব্যুরোচীফঃ চাদাবাজি-chadabaji

সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার আমবাড়ীয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার লিয়াকত আলীর বিরুদ্ধে মাদ্রাসার শরীর চর্চা শিক্ষকের নিকট ৩ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে না পেয়ে উক্ত শিক্ষককে মাদ্রাসায় হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর না করতে দেওয়ায় লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে ।
লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার আমবাড়ীয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার লিয়াকত আলী মাদ্রাসার ক্বারী শিক্ষক হিসাবে কর্মরত কে ২০১৪ সালে ৪ লক্ষ টাকা ডোনেশন নিয়ে শরীর চর্চা শিক্ষক কে নিয়োগ দান করার পর যোগদান করে এবং  ২০১৪ সালে মে মাসের শরীর চর্চা শিক্ষক হিসেবে এমপিওভুক্ত হয়। গত ২ মাস যাবৎ উক্ত শিক্ষক আব্দুল মালেককে সুপার লিয়াকত আলী ৩ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে এবং চাঁদা না দেওয়ায় গত ১লা অক্টোবর থেকে আব্দুল মালেক মাদ্রাসায় উপস্থিত থাকলেও হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করতে দিচ্ছেনা সুপার। আজ সোমবার শিক্ষক মালেককে প্রতিষ্ঠানে দায়িত্ব পালন করতে না দিয়ে তাকে প্রতিষ্ঠানে আসতে নিষেধ করে। এ ব্যপারে আব্দুল মালেক তাড়াশ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ জিল্লুর রহমান খানের নিকট লিখিত অভিযোগ প্রেরণ করে। তাড়াশ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিখিত অভিযোগটি উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একাডেমিক সুপারভাইজারকে তদন্ত করার দায়িত্ব দেন। এ বিষয়ে অভিযুক্ত সুপারিনটেনডেন্ট মোঃ লিয়াকত আলী মোবাইল ফোনে কথা বলতে অস্বীকৃতি জানান।