Pages

Categories

Search

আজ- শুক্রবার ১৬ নভেম্বর ২০১৮

টিআর-কাবিখা বিষয়ক বক্তব্যে ইনুর দুঃখ প্রকাশ

জুলাই ২৫, ২০১৬
জাতীয়
No Comment
(ফাইল ছবি)

(ফাইল ছবি)

নিউজ ডেস্ক:
টিআর-কাবিখা বিষয়ে সাম্প্রতিক বক্তব্যে দুঃখ প্রকাশ করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। সোমবার তথ্য মন্ত্রণালয়ের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘গতকাল (রোববার) দুপুরে ঢাকায় পল্লী কর্ম সহায়ক ফাউন্ডেশনের সম্মেলন কক্ষে ‘চতুর্থ বাংলাদেশ সামিট- টেকসই উন্নয়ন ২০১৬’ সম্মেলন উদ্বোধন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর বক্তব্যে টিআর-কাবিখা প্রসঙ্গে প্রকাশিত সংবাদের বিষয়ে তার দৃষ্টি আকৃষ্ট হয়েছে। এ বিষয়ে মন্ত্রী কোনো বিভ্রান্তি বা ভুল বোঝাবুঝি হলে বা কেউ এতে দুঃখ পেয়ে থাকলে তা অনভিপ্রেত বলে জানান এবং সেক্ষেত্রে নিজেও দুঃখ প্রকাশ করেন।’

হাসানুল হক ইনু বলেন, টেস্ট রিলিফ ও কাজের বিনিময়ে খাদ্য কর্মসূচিতে অতীতের সরকারের অব্যবস্থাপনা ও দুর্নীতি অবসানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের আন্তরিক প্রচেষ্টার বিষয়টি তুলে ধরতে গিয়ে তিনি ক্ষেত্র বিশেষে ঘটা ঘটনার উদাহরণ হিসেবে দুর্নীতির কথা উল্লেখ করেছিলেন, ঢালাওভাবে কাউকে লক্ষ্য করে কিছু বলেননি।

তিনি আরো বলেন, ‘আমি নিজে একজন সংসদ সদস্য হিসেবে সংসদ সদস্যবৃন্দসহ সকল জনপ্রতিনিধিদের আন্তরিকভাবে সম্মান করি এবং সেই সম্মান অক্ষুণ্ন রয়েছে। তারপরও কেউ যদি অনভিপ্রেতভাবে দুঃখ পেয়ে থাকেন, সেজন্য আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত।’

উল্লেখ্য, গতকাল (রোববার) এক অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘দরিদ্রদের জন্য কর্মসূচি টিআর ও কাবিখা বরাদ্দের ৮০ শতাংশই চুরি হয়। ৩০০ কোটি টাকা বরাদ্দ হলে ১৫০ কোটি টাকা (অর্ধেক) যায় এমপিদের পকেটে। বাকি ১৫০ কোটি টাকার সিংহভাগ যায় চেয়ারম্যান-মেম্বারদের পকেটে। আমরা চোখ বন্ধ করে এ দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দিয়ে যাচ্ছি।’

‘সব এমপিই হয়তো চুরি করেন না। কিন্তু বেশির ভাগ এমপিই এ কাজটি করেন। এ জন্য উন্নয়ন বাজেটের অর্থ সরাসরি ইউনিয়ন পরিষদের বাজেটে দেওয়া উচিত। এতে উন্নয়ন বৈষম্য কমে আসবে’ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।