Pages

Categories

Search

আজ- মঙ্গলবার ২০ নভেম্বর ২০১৮

ঝালকাঠির রাজাপুরে ১২ মন ওজনের ষাড়ের সন্ধান

অগাষ্ট ২২, ২০১৭
ঝালকাঠি
No Comment


ঝালকাঠি সংবাদদাতাঃ ঝালকাঠির রাজাপুরে ১২মন ওজনের এক ষাড়ের সন্ধান পাওয়া গেছে। উপজেলা সদরের বাইপাস মোড় এলাকায় আব্দুল্লাহ দুগ্ধ খামারে বাদসা নামে এ ষাড় কে দেখতে প্রতিদিন হাজার হাজার উৎসুক জনতা ও ক্রেতা ভিড় জমাচ্ছেন।

আব্দুল্লাহ দুগ্ধ খামারের মালিক হাফেজ মোঃ ওবায়দুল্লাহ জানান, ৫বছর যাবৎ তিনি ঐ খামারটি পরিচালনা করে আসছেন। ৫বছর পূর্বে তিনি ২টি গরু দিয়ে খামার শুরু করেন। এখন তার খামারে ১২টি গরু রয়েছে। এর মধ্যে ৪টি গাভী,৪টি বাছুর ও ৪টি বলদ রয়েছে। তার মধ্যে আড়াই বছর বয়সী একটি বলদের দিকে সবার নজর। ওবায়দুল্লাহ বলদটিকে বাদসা নামে ডাকেন।

তিনি আরো জানান যে, বলদটির আনুমানিক ওজন ১০/১২ মন। বলদটি অনেক ওজনের হওয়ায় হাটে নিয়ে বিক্রি করা প্রায় অসম্ভব। তাই অনেকেই খামারে গিয়ে বলদটি দেখেন। আড়াই বছরে বলদটির দাম হাকিয়েছেন ৪ লক্ষ টাকা। আব্দুল্লাহ দুগ্ধ খামারে সবগুলো গরুকে দেশীয় খাবার খাওয়ানো হয়।

আব্দুল্লাহ আরো জানান,আমার খামারে বাদসা নামের ষাড়ঁটি এবছর কোরবানীতে বিক্রি করার ইচ্ছা রয়েছে। বড় এবং দামের পরিমান বেশী হওয়ায় কোরবানীর পূর্ব মুহুর্তপর্যন্ত অপেক্ষা করবেন বলে তিনি জানান।

বাইপাস এলাকার জুয়েল তালুকদার বলেন, ষাড়টিকে দেশীয় খাবার খাওয়ানোর খবর শুনে অনেকেই এই ষাড়টিকে দেখে কেনার আগ্রহ প্রকাশ করে ঐ খামারে জান।

রাজাপুর উপজেলা প্রানী সম্পাদ কর্মকর্তা অলকেশ কুমার এই খামার সম্পর্কে বলেন, এই খামারের সবগুলোর গরু অষ্ট্রেলিয়ান হলিষ্টিন ফ্রিজিয়ান জাতের। খামারের পরিচর্যায় সার্বিক সহযোগীতায় সকল পরামর্শ তিনি করে আসছেন। দেশীয় খাবার-খইর,ভুষী খাওয়ালেও এই ধরনের বড় জাতের গরুর খামার করে স্বাবালম্বী হওয়া সম্ভব। যেটা হাফেজ মোঃ ওবায়দুল্লাহ দেখিয়েছেন।