Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ২৭ মার্চ ২০১৯

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় সম্পূর্ণ সেশনজটমুক্ত — ভিসি প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ

গাজীপুর দর্পণ রিপোর্ট: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ ঘোষণা দিয়েছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভূক্ত সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সম্পূর্ণ সেশনজটমুক্ত।
২৩শে ফেব্রুয়ারি শনিবার সকালে গাজীপুর ক্যাম্পাসের সিনেট হলে অনুষ্ঠিত সিনেটের বার্ষিক বিশেষ অধিবেশনে এই ঘোষণা দেন।

উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদের সভাপতিত্বে সিনেট অধিবেশনের শুরুতেই গত একবছরে দেশে ও দেশের বাইরে যেসব বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ মৃত্যুবরণ করেন এবং ২১শে ফেব্রুয়ারি পুরাতন ঢাকার চকবাজারে মর্মান্তিক অগ্নিকান্ড যেসব লোক নিহত হয়েছেন, তাঁদের স্মরণে এক মিনিট দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন এবং অগ্নিকান্ড আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করা হয়। এরপর উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ তাঁর অভিভাষণে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় সম্পূর্ণ সেশনজটমুক্ত হওয়ার ঘোষণা দান, কতগুলো বেসরকারি কলেজকে অবকাঠামোগত সহায়তাদান ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা প্রদানের মাধ্যমে মডেল কলেজে উন্নীতকরণ, শতবর্ষী কলেজসমূহের শিক্ষার মানোন্নয়নে বিশেষ প্রকল্প গ্রহণ এবং কলেজের ছাত্র সংসদ নির্বাচনের ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, ‘‘সংখ্যাতত্ত্বের দিক থেকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক সম্প্রসারণ ঘটেছে, এখন আবশ্যক গুণ ও মানসম্পন্ন শিক্ষা। এটি আজ গ্লোবাল কনসার্ন। তাই জাতিসংঘের এসডিজি-২০৩০ লক্ষ্যমাত্রার ৪ নম্বর দফায় ‘মানসম্পন্ন শিক্ষার’ বিষয়টি স্থান পেয়েছে।” তিনি আরো বলেন, “জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের দেশব্যাপী ২ সহস্রাধিক কলেজের শিক্ষার মান রাতারাতি বৃদ্ধি সম্ভব নয়, তবে হাত গুটিয়ে বসে থাকারও সুযোগ নেই। শিক্ষার মানোন্নয়নের লক্ষে আমাদেরকে পরিকল্পিতভাবে এগিয়ে যেতে হবে।”

সিনেট অধিবেশনে সংসদ সদস্য জনাব শফিকুর রহমান এম এ, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর, অধ্যাপক খন্দকার বজলুল হক, অধ্যাপক নজরুল ইসলাম, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. শরীফ এনামুল কবির, অধ্যাপক ড. মোঃ শাহজাহান মিয়া, বিভাগীয় কমিশনার বরিশাল, রাজশাহী, খুলনা, ময়মনসিংহ, চেয়ারম্যান, দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ড, অধ্যক্ষ, রাজশাহী সরকারি কলেজ, রংপুর সরকারি কলেজ, জয়পুরহাট সরকারি কলেজ, হালুয়াঘাট কলেজ, রোকেয়া মনসুর মহিলা কলেজ, অজিত গুহ কলেজ, ড. ফাতেমা হেরেন বিএল কলেজ, এ এস কাইয়ুম উদ্দিন আহমেদ, বরিশাল বিএম কলেজ, ড. মোঃ আখতার ফারুক, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রমুখ শিক্ষার মানোন্নয়ন বিষয়ে বিভিন্ন দিক তুলে ধরে সুপারিশ আকারে বক্তব্য রাখেন।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাফিজ মু. হাসান বাবু, অধ্যাপক ড. মোঃ মশিউর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক নোমান উর রশীদ, বিভাগীয় কমিশনার, শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান, কলেজের অধ্যক্ষ, বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনসহ মোট ৬০ জন সদস্য অধিবেশনে উপস্থিত ছিলেন।