Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ২৭ মার্চ ২০১৯

‘জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় আজ ঘুরে দাঁড়িয়েছে’—শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি

গাজীপুর দর্পণ রিপোর্ট : শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধিতে পারফরমেন্সভিত্তিক র‌্যাংকিং ব্যবস্থা প্রবর্তন কলেজসমূহের মধ্যে ইতিবাচক ও সুস্থ প্রতিযোগিতার পরিবেশ তৈরি করবে। নানা প্রতিক‚লতা ও নেতিবাচক ইমেজ কাটিয়ে ওঠে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় আজ ঘুরে দাঁড়িয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি। আজ ২মার্চ শনিবার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ পারফরমেন্স র‌্যাংকিং ২০১৬ ও ২০১৭-এর অ্যাওয়ার্ড ও সনদ প্রদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন।
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি। দেশব্যাপী জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত ৮৫৭টি অনার্স কলেজের মধ্যে অনুষ্ঠিত র‌্যাংকিংয়ে জাতীয় পর্যায়ে ৫টি সর্বসেরাসহ মোট ৮৯টি কলেজকে সেরা কলেজ হিসেবে সম্মাননা সনদ, বই ক্রয়ের জন্য পুরস্কার, চেক ও ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, “নানা প্রতিক‚লতা ও নেতিবাচক ইমেজ কাটিয়ে ওঠে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় আজ ঘুরে দাঁড়িয়েছে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে পারফরমেন্সভিত্তিক র‌্যাংকিং ব্যবস্থা প্রবর্তন কলেজসমূহের মধ্যে ইতিবাচক ও সুস্থ প্রতিযোগিতার পরিবেশ তৈরি করবে এবং এর পাশাপাশি শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধি নিশ্চিত করবে বলে আমার বিশ্বাস।” শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি আরো বলেন, “প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার শিক্ষাকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে বাংলাদেশকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় একটি অসাম্প্রদায়িক, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিনির্ভর উন্নত-সমৃদ্ধ রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তুলে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলার স্বপ্ন পূরণে কাজ করে যাচ্ছে। সে লক্ষ্য অর্জনে আমাদের সকলকে আত্মনিয়োগ করতে হবে।” সভাপতির বক্তৃতায় উপাচার্য ড. হারুন-অর-রশিদ বলেন, “জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় আজ সেশনজটমুক্ত, যা আমাদের জন্য এক সুখের বার্তা ও বড় সাফল্য। এখন গুণ ও মান সম্পন্ন শিক্ষা নিশ্চিত করার চ্যালেঞ্জেও আমাদের সফল হতে হবে। সে লক্ষ্যে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান প্রশাসন নিরলস প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে।”

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব জনাব মো. সোহরাব হোসাইন। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-উপাচার্য ড. মশিউর রহমান স্বাগত বক্তব্য রাখেন। রেজিস্ট্রার মোল্লা মাহফুজ আল-হোসেন অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন। অন্যান্যের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-উপাচার্য ড. হাফিজ মুহম্মদ হাসান বাবু, ট্রেজারার প্রফেসর নোমান উর রশীদ, পুরস্কারপ্রাপ্ত কলেজসমূহের অধ্যক্ষ ও আমন্ত্রিত অতিথিসহ বিপুল সংখ্যক সুধীজন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।