Pages

Categories

Search

আজ- রবিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের: মান্দায় প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ঘরে আগুন

মে ১৪, ২০১৭
অপরাধ, আইন- আদালত, নওগাঁ
No Comment

মোঃ হাবিবুর রহমান, মান্দা (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ নওগাঁর মান্দায় প্রতিপক্ষ আসামীদের ফাঁসাতে নিজের ঘরে নিজেই আগুন দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার তেঁতুলিয়া ইউপির পিড়াকৈর গ্রামে। সরজমিনে গেলে জানা যায়, প্রতিপক্ষ মৃত ফয়েজ উদ্দিন শেখের ছেলে হাবিবুর রহমান মাষ্টার গং দের সঙ্গে একই এলাকার প্রতিবেশী শ্রীমন্ত মংলা সাহার ছেলে শ্রী প্রদীপ কুমার গং দের দীর্ঘদিন থেকে বসতভিটা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে গতকাল শনিবার রাত আনুমানিক ৩ টার সময় শ্রী প্রদীপ কুমার এর বাড়িতে রাতের অন্ধকারে কে বা কাহারা আগুন দিয়েছে জানা না গেলেও আসামী পক্ষকে দোষারোপ করা হচ্ছে বলে আসামীরা জানান। প্রকৃত ঘটনায় জানা গেছে, আসামী পক্ষ হাবিবুর রহমান মাষ্টার ১৯৮৮ সালে শ্রী হেমন্ত নাথের সাথে বিনিময় সূত্রে এদেশে আসেন। আসার পর অদ্যবধি তারা তাদের স্ব স্ব জমি ভোগদখল করে আসছেন। এমতাবস্থায় হঠাৎ হিন্দু সম্প্রদায়ের লোক প্রদীপ কুমার গংরা ১৯৬৯ সালের ১৯২১৯ নং দলিল বের করে প্রতিপক্ষ আসামীদের কাছে জমি পাবে বলে দাবী করে। দলিলে আসামীদের সন্দেহ হলে গত ১৬/১১/১৬ ইং তারিখে রাজশাহী থেকে উক্ত নং দলিলের জাবেদা নকল উত্তোলন করিলে দেখা গেছে উক্ত নং দলিলে প্রকৃত দাতা-গ্রহীতার কোন মিল নেই। উক্ত দলিলের দাতা-ইব্রাহীম শেখ ও গ্রহীতা-আব্দুস সামাদ রাজশাহীর গোদাগাড়ি নামে রয়েছে। এব্যাপারে বাদী পক্ষের শ্রী প্রদীপ কুমার সাহার সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমরা সংখ্যালঘু পরিবারের লোক হওয়ায় বাড়ি-ঘর থেকে উচ্ছেদ করার জন্য বিভিন্নভাবে অত্যাচার করে আসছে। অপরদিকে প্রতিপক্ষ আসামী হাবিবুর রহমান মাষ্টার এর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, তারা সংখ্যালঘু পরিবারের লোকের দোহায় দিয়ে আমাদেরকে মামলা-হামলা দিয়ে হেনস্তা করছে। এব্যাপারে মান্দা থানার ওসি আনিছুর রহমান এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, সরিষার ভিতর ভূত ঘুকেছে তবে উভয় পক্ষকে ডেকে মিমাংসার জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে।