Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

গোবিন্দগঞ্জে মাছ চুরিতে বাঁধা দেওয়ায় হামলায় দু’ভাই গুরুত্বর আহত

অক্টোবর ২২, ২০১৭
অপরাধ, আইন- আদালত, গাইবান্ধা
No Comment

শাহ আলম সরকার সাজু, গোবিন্দগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি: গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে পুকুরের মাছ চুরি করার সময় বাঁধা দেওয়ায় প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে দুই সহদর গুরুত্বর আহত হয়ে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। এ বিষয়ে ৮ জনকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গোবিন্দগঞ্জ থানার মামলা সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার সাপমারা ইউনিয়নের চক-রহিমাপুর মৌজার ১ একর ২৩ শতাংশ পুকুর নিয়ে আসামীদের সহিত আদালতে মামলা চলছে। এই মামলার জের ধরে আসামী চক-রহিমাপুর গ্রামের মোকছেদ আলীর পুত্র, জবিদুল ইসলাম (৪০), জাহিদুল ইসলাম (৩২), জয়নুল ইসলাম (৩০), আ: কাফির পুত্র, মান্নান মিয়া (৩২), হামেদ আলীর পুত্র, আলম মিয়া, (৩৫), মৃত-হাছেন আলীর পুত্র, বাদশা মিয়া (৩৫), মোকছেদ আলীর পুত্র ময়নুল ইসলাম, (৩০) ও জহুরুল ইসলাম (৪০) গত ১৯ অক্টোবর ভোর ৬ টার দিকে আসামীরা সংঘবদ্ধ হয়ে বিভিন্ন ধারালো অস্ত্রসহকারে বে-আইনি ভাবে ওই পুকুরের মাছ চুরি করতে যায়। এই সংবাদ পেয়ে দখলীয় পুকুরের মালিক একই গ্রামের মৃত-নিজাম উদ্দিন মন্ডলের পুত্র, দুই সহদর জামাল উদ্দিন মন্ডল ও এনামুল হক মন্ডল ওই দিন সকাল ৭ টার দিকে পুকুরে এসে মাছ চুরিতে বাঁধা দেয়। এতে আসামীরা দুই সহদর ভাইকে হত্যার উদ্দেশ্যে ধারালো অস্ত্র দ্বারা হামলা চালিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্তাত্ত গুরুত্বর জখম করে। তাদের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে আসামীদের কবল থেকে দুই ভাইকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্য্রে চিকিৎসার জন্য জরুরী বিভাগে ভর্তি করে দেয়। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাদের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রিফার্ড করেন। বর্তমানে গুরুত্বর আহত এনামুল হক মন্ডলকে রংপুর সামরিক হাসপাতাল এবং জামাল উদ্দিন মন্ডলকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। আসামীরা ওই পুকুর থেকে বিভিন্ন প্রজাতির অনুমান ১২ মন মাছ চুরি করে নিয়ে যায়। যাহার বাজার মূল্য অনুমান ৯০ হাজার টাকা।

এ ব্যাপারে আহত দুই সহদরের অপর ভাই শহিদুল ইসলাম মন্ডল বাদী হয়ে গোবিন্দগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। যার মামলা নং-৩৬. তারিখ-২০ শে অক্টোবর/১৭ইং।

গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমান ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, মামলার আসামী গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে।